ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

জুলাই ২৮, ২০২০ - ৫:১০ অপরাহ্ণ
কিশোরীকে কুপিয়ে জখম

মাদারীপুরে রাজৈরে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় এক কিশোরীকে কুপিয়ে জখম করেছে সজিব শেখ নামের এক বখাটে। গুরুতর আহত অবস্থায় নির্যাতিতা ওই কিশোরীকে ভর্তি করা হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের পর অভিযুক্তকে ধরতে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্বজনরা জানায়, সোমবার রাত ৯টার দিকে মাদারীপুরের রাজৈর পৌরসভার হৃদয়নন্দী এলাকার ওই কিশোরী বাড়ির উঠানে থাকা খরগোসকে খাবার দিতে গেলে সেখানে ওঁৎ পেতে থাকা একই এলাকার হোসেন শেখের ছেলে সজিব তাকে জোর করে তুলে নিয়ে যেতে চায়। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ব্যর্থ হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই কিশোরীর মাথায় আঘাত করেন তিনি। কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় বখাটে সজিব। পরে গুরুতর অবস্থায় রাতেই তাকে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

নির্যাতিতা ওই কিশোরী জানায়, প্রায় দুই বছর ধরে বখাটে সজিব মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে ওই কিশোরীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসার পাশাপাশি মাঝে মাঝে ইভটিজিং করত। এ ঘটনার এলাকায় বেশ কয়েকবার সালিশি হলে আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠে সজিব।

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে সজিব এ ঘটনা ঘটিয়েছে দাবি করে এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন স্থানীয়রা।

নির্যাতিতার মা বলেন, চলতি বছর টেকেরহাট আলহেরা দাখিল মাদ্রাসা থেকে এসএসসি পাস করেছে আমার মেয়ে। পরিবারে চার ভাই-বোনের মধ্যে ছোট সে। দুই বছর ধরে সজিব উত্যক্ত করেই চলছে। রাস্তাঘাট, বাড়ির আশপাশে প্রতিনিয়ত আফরিনাকে উত্যক্ত করে। এ ঘটনার কঠিন বিচার চাই।

রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রদীপ কুমার মন্ডল জানান, নির্যাতিতাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তার মাথায় বেশ কয়েকটি সেলাই করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ধারালো কোনো অস্ত্র দিয়ে তাকে আঘাত করা হয়েছে।

মাদারীপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. আবির হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত সজিবকে ধরতে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। বিভিন্ন স্থানে অভিযানও পরিচালনা করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ