ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   স্কুলছাত্রের আঙুল কেটে নিল মাদক ব্যবসায়ীরা

স্কুলছাত্রের আঙুল কেটে নিল মাদক ব্যবসায়ীরা

আগস্ট ২৬, ২০২০ - ৭:০৭ অপরাহ্ণ

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে প্রতিবাদ করায় কুপিয়ে এক স্কুলছাত্রের দুই আঙুল কেটে ফেলেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। এ ঘটনায় রবিন নামে এক যুবককে ধরে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। বাকি হামলাকারীদের ধরতে অভিযান চলছে বলে জানায় পুলিশ।

ভিটেমাটিহীন ষাটোর্ধ্ব দেলোয়ার হোসেন। ভবিষ্যতের কথা ভেবে ছেলেকে পড়াশোনা করাতেই গোপালগঞ্জ থেকে এসে ঠাঁই নেন মেয়ের বাসা কালিয়াকৈরে। বাবা-মায়ের স্বপ্ন ছিল ছেলে সেনাবাহিনীতে চাকরি করবে। কিন্তু মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় সেই সব শেষ।

দেলোয়ার হোসেনের বাবা বলেন, তিন-চারটা মাষ্টার রেখে প্রাইভেট পড়াইতাম। তাও এখন বাদ হয়ে গেলো। আমার সব শেষ হয়ে গেলো।

এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য বাড়ায় কয়েক মাস আগে প্রশাসন ও এলাকাবাসীর যৌথ উদ্যোগে মাদক বিরোধী কমিটি করা হয়। পরে পরান ও তার বন্ধুদের সহযোগিতায় ক’জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর জেরে সোমবার দুপুরে ধোপাচালা এলাকায় একা পেয়ে ওই স্কুলছাত্রের ওপর হামলা চালায় মাদক ব্যবসায়ীরা। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনার পর থেকে সুষ্ঠু বিচার দাবি করে আসছে স্কুল শিক্ষকসহ এলাকাবাসী।

এক এলাকাবাসী বলেন, নয়ন এবং নিরব দুজনে পরানকে ধরে নিয়ে গিয়ে চাপাতি দিয়ে আঙুল কেটে দিয়েছে।

আরেক এলাকাবাসী বলেন, পরান সব সময় মাদকের বিরোধিতা করে আসার কারণেই তার ওপর অতর্কিত হামলা হয়েছে। আমরা এর সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।

এদিকে মামলার প্রধান আসামিকে কারাগারে পাঠানোসহ বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযানে চলছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা।

গাজীপুর কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন চৌধুরী বলেন, আমরা তদন্ত করে পুরো ঘটনা বলতে পারব। আমরা এর মধ্যে একজনকে গ্রেফতার করেছি। বাকিদেরকে গ্রেফতার করার পর আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে।

স্থানীয় আয়শা ইসলামিক হাইস্কুল থেকে আগামী বছর এসএসসি পরীক্ষা দেয়ার কথা সাজিদুল ইসলাম পরানের। হামলায় তার বাম হাতের দুটি আঙুল বিচ্ছিন্নসহ শরীরের বিভিন্নস্থানে জখম রয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ