ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   সোলাইমানি হত্যায় জড়িত গুপ্তচরের ফাঁসি কার্যকর

সোলাইমানি হত্যায় জড়িত গুপ্তচরের ফাঁসি কার্যকর

জুলাই ২০, ২০২০ - ৮:১০ অপরাহ্ণ
কাসেম সোলাইমানি

মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী-আইআরজিসির কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে একজনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে ইরান। সোমবার ভোরে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে আদালতের নির্দেশ বাস্তবায়ন করা হয়েছে বলে বিচার বিভাগ জানিয়েছে।

মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া মাহমুদ মুসাভি মাজদ যুক্তরাষ্ট্রের সিআইএ ও ইসায়েলের গোয়েন্দা বাহিনী মোসাদের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে জানানো হয়েছে। এই গুপ্তচরের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই বাগদাদে এই ড্রোন হামলা হয়।

সোমবার ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরের বরাত দিয়ে আরব নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ডস এবং কুদস ফোর্সের বিষয়ে সিআইএ ও মোসাদকে তথ্য দিয়েছিলেন মুসাভি। সোমবার তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের তথ্য নিশ্চিত করলেও এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি ইরান।

এর আগে, জুন মাসে সোলাইমানির অবস্থান সম্পর্কে তথ্য দেয়ায় মুসাভিকে মৃত্যুদণ্ড দেন ইরানের একটি আদালত।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন হামলায় নিহত হন জেনারেল সোলাইমানি, ইরাকের প্রভাবশালী সশস্ত্র গোষ্ঠী হাশদ আল-শাবির উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ আরও কয়েকজন। এ হত্যাকাণ্ডের জেরে যুক্তরাষ্ট্র-ইরান সম্পর্ক তলানিতে নেমে আসে।

কাসেম সোলেইমানি ইসলামিক বিপ্লবী গার্ড কর্পস (আইআরজিসি) -এর একজন ইরানি মেজর জেনারেল ছিলেন এবং ১৯৯৯ সাল থেকে এর কুদস ফোর্সের কমান্ডার ছিলেন। কুদস ফোর্স মূলত বহির্মুখী সামরিক বাহিনী ও গোপনীয়তার জন্য দায়বদ্ধ একটি বিভাগ।

সোলেইমানি তাঁর সামরিক জীবন শুরু করেছিলেন ১৯৮০ – এর দশকের ইরান-ইরাক যুদ্ধের শুরুতে, তিনি ৪১ তম বিভাগের অধিনায়ক ছিলেন। পরে তিনি ঐচ্ছিক বেশ কিছু অভিযানের সাথে জড়িত ছিলেন, সাদ্দামবিরোধী শিয়া ও ইরাকের কুর্দি গোষ্ঠীগুলিকে সামরিক সহায়তা প্রদান এবং পরবর্তীতে ফিলিস্তিনি অঞ্চলগুলিতে লেবাননের হিজবুল্লাহ এবং হামাসকে সহায়তা প্রদান করেছেন ।

২০১২ সালে সোলায়মানি সিরিয়ার গৃহযুদ্ধের সময় বিশেষত ইসলামিক স্টেট অব ইরাক অ্যান্ড দ্য লেভান্টের বিরুদ্ধে পরিচালিত অভিযানে সিরিয়ার সরকারকে গুরুত্বপূর্ণ সহযোগিতা প্রদান করেন। সোলাইমানি ২০১৪-২০১৫ সালে ইসলামিক স্টেট অফ ইরাক এবং লেভান্ট (আইএসআইএল) এর বিরুদ্ধে অগ্রসর হওয়া সম্মিলিত ইরাকি সরকার এবং শিয়া মিলিশিয়া বাহিনীর কমান্ডেও সহায়তা করেছিলেন।

সোলেইমানি ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকের বাগদাদে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি টার্গেট করা বিমান হামলায় নিহত হন। তাঁর সাথে ফোর্সের আরো কিছু জনপ্রিয় সামরিক সদস্যরা নিহত হয়।

আপনার মতামত জানানঃ