ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   সেঞ্চুরি করেই ফিরলেন কোহলি

সেঞ্চুরি করেই ফিরলেন কোহলি

October 8, 2016 - 3:44 PM

ক্রীড়া ডেস্ক : ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টে খেলেছিলেন ক্যারিয়ার সেরা ২০০ রানের ইনিংস। তারপর যেন ব্যাটিংটাই ‘ভুলে’ গিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। ক্যারিয়ার সেরা ওই ইনিংসের পর ৭ ইনিংসে যে একবারও পঞ্চাশ ছুঁতে পারেননি ভারতীয় অধিনায়ক। এর মধ্যে চারবার ফেরেন দুই অঙ্ক ছোঁয়ার আগেই। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই টেস্টেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। অবশেষে তৃতীয় টেস্টে বড় ইনিংস খেললেন কোহলি। ইন্দোরে প্রথম দিনে সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। কোহলির অপরাজিত ১০৩ রানের সঙ্গে চেতেশ্বর পুজারার অপরাজিত ৭৯, চতুর্থ উইকেটে দুজনের ১৬৭ রানের বিচ্ছিন্ন জুটিতে শনিবার প্রথম দিনটা নিজেদের করে নিয়েছে ভারত। ৯০ ওভারে ৩ উইকেটে ২৬৭ রানে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা। এদিনই টেস্ট অভিষেক হলো ইন্দোরের হোলকার ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। কিন্তু নিজেদের ২২তম টেস্ট ভেন্যুতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। দলীয় ২৬ রানেই জিতান প্যাটেলের বলে টম ল্যাথামকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান মুরালি বিজয় (১০)। ২০১৪ সালের আগস্টের পর প্রথমবারের মতো টেস্ট খেলতে নেমে গৌতম গম্ভীর শুরুটা ভালোই করেছিলেন। বাঁহাতি বযাটসম্যান রানের খাতাই খোলেন ম্যাট হেনরিকে পয়েন্ট দিয়ে চার মেরে। চতুর্থ ওভারে হেনরিকেই পরপর দুই বলে হাঁকান ছক্কা। এক সময় গম্ভীরের নামের পাশে ২০ বলে ২৪ রান। কিন্তু ইনিংসটা বড় করতে পারেননি। ট্রেন্ট বোল্টের বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়ার আগে তিনটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন ২৯ রান। তিন নম্বর ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসা পূজারা বিদায় নেন মিচেল স্যান্টনারের বলে বোল্ড হয়ে। ১০৮ বলে ৪১ রান করেন পুজারা। তখন ভারতের স্কোর ৩ উইকেটে ১০০। এর পরেই কোহলি-রাহানের সেই জুটি। দিনে আর একটি উইকেটও ফেলতে পারেনি নিউজিল্যান্ডের বোলাররা। কোহলি পেয়েছেন ক্যারিয়ারের ১৩তম সেঞ্চুরি। ১৭ ইনিংস পর ঘরের মাঠে সেঞ্চুরি পেলেন তিনি। ২০১৩ সালে চেন্নাইয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সবশেষ তিন অঙ্ক ছুঁয়েছিলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

আপনার মতামত জানানঃ