ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   সিরিজে বাংলাদেশের দাপট দেখানোর প্রত্যয়

সিরিজে বাংলাদেশের দাপট দেখানোর প্রত্যয়

September 25, 2016 - 7:11 AM

ডেক্স: মাঠের লড়াইটা আফগানিস্তানের সঙ্গে লড়লেও বাংলাদেশের মূল লড়াইটা নিজেদের সঙ্গে। ওয়ানডেতে যেই বিন্দুতে ১০ মাস ১৪ দিন আগে ফুলস্টপ দিয়েছিল বাংলাদেশ, আজ সেই বিন্দু থেকে সামনে এগোনোর সময়। একই ধারাবাহিকতা ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশের।

কাল মাশরাফি বারবার বলছিলেন, ‘আমরা যে পরিণত এবং ভালো একটি দল, সেটা প্রমাণের এখনই সুযোগ। কারণ ভালো দল যেখানে শেষ করে সেখান থেকেই আবার নতুন করে শুরু করে।’

দলীয় কোচ হাথুরুসিংহেও যোগ করেন এভাবে, ‘ব্যাটিং ও বোলিংয়ের লড়াই হবে ঠিকই। আমরা সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন নই। আমরা মাঠে মানসিক লড়াই নিয়ে চিন্তিত। বাংলাদেশ এ লড়াইয়ে ভালো করলে নিশ্চিতভাবেই আমরা জয় পাব।’
অতীতে লম্বা বিরতি দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে বারবার হারের তিক্ত স্বাদ পেত বাংলাদেশ। কিন্তু বর্তমান দলটি অনেকটাই পরিণত। পরিণত বলেই মাঠের লড়াইয়ে উতরে যাওয়ার আত্মবিশ্বাস। ২০০১ সালের ১১ এপ্রিল বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের পর সাত মাস পরে ঘরের মাঠে ওদের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে হারের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। ২০০৫ সালের সেপ্টেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলার ৬ মাস পর ঘরের মাঠে লঙ্কানদের আতিথ্য দেয় বাংলাদেশ। অবশ্য প্রথম ম্যাচটি হারলেও বগুড়ায় দ্বিতীয় ম্যাচে জয় পায় বাংলাদেশ।

২০০৯ সালের শুরুর মাসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয়ের ৬ মাস পর মাঠে নামার সুযোগ পায় বাংলাদেশ। সেবার জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দিয়ে দ্বিতীয় সারির দলের বিপক্ষে জয় পায় বাংলাদেশ। এরপর ঘরের মাঠে এশিয়া কাপের ফাইনালে হারের ৮ মাস পর মাঠে নেমে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জিতলেও প্রথম দুই ম্যাচ হেরেছিল বড় ব্যবধানেই।
মাশরাফি কাল জানিয়েছিলেন মাঠে লড়াইয়ে দাপট দেখাবে টাইগাররা। তার ভাষ্য, ‘আমরা আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে চাই। আমরা যেভাবে শেষ করেছি সেভাবেই খেলা শুরু করতে চাই।’ মাশরাফির কথায় স্পষ্ট ঘরের মাঠে টানা ষষ্ঠ সিরিজ জিততে চায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নেওয়ার পর দুবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পাশাপাশি পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ। এবারও এক ও অভিন্ন লক্ষ্য টাইগারদের।

আফগানদের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা খেলেই সিরিজ জয়ের প্রত্যয় বাংলাদেশের সীমিত ওভারের অধিনায়কের কণ্ঠে, ‘আমরা আমাদের সেরা খেলা খেলব। সিরিজও জিততে চাইব।’
কোচ চাইলেন মাশরাফির থেকেও বেশি কিছু, ‘আমরা ৩-০ ব্যবধানে জিততে চাই। শুধু এটা না, ইংল্যান্ড সিরিজেও একই ফল দেখতে চাই।’ শিষ্যদের ওপর পূর্ণ আস্থা থাকায় তার এ চাওয়া।

মাশরাফি ও তার দলের ওপর আস্থা কোটি ক্রিকেটপ্রেমীর। সাকিব, তামিমরা আবারও আনন্দ, উল্লাসের উপলক্ষ তৈরি করে দেবেন, এটাই একমাত্র প্রত্যাশা। প্রত্যাবর্তনের সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জিতলে এবং ইংল্যান্ডকে ২-১ ব্যবধানে হারালে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে ছয়ে উঠবে বাংলাদেশ। মুশফিক, মাহমুদউল্লাহরা কি সেই সুযোগটি নিতে পারবেন?

দুই দলের প্রথম লড়াইটা আজ মিরপুর শের-ই-বাংলায় দুপুর ২.৩০ মিনিটে ‍শুরু হবে।

আপনার মতামত জানানঃ