ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ধর্ম   »   সর্বদাই অশান্তিতে থাকে লোভী মানুষরা

সর্বদাই অশান্তিতে থাকে লোভী মানুষরা

অক্টোবর ২৪, ২০২০ - ৯:৪৬ অপরাহ্ণ

লোভ মানুষের অধপতনের অন্যতম কারণ হিসেবে পরিগণিত হয়। লোভ মানুষের জীবন থেকে সুখ কেড়ে নেয়। লোভের নিন্দা করা হয়েছে পবিত্র কোরআন ও হাদিসে। লোভের নিন্দা করেছেন জ্ঞানী ও বুজুর্গরাও। বিখ্যাক একটি প্রবাদ আছে, ‘লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু। ’

লোভের উত্পত্তি কোথা থেকে এর সংজ্ঞা স্বয়ং মহানবী (সা.)-এর হাদিসে বর্ণিত হয়েছে। আল্লাহর রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘জেনে রাখ! ভয়, কৃপণতা ও লোভ একই প্রকারের। আর তাদের মূলে হলো খারাপ ধারণা পোষণ করা।

হজরত হাসান বসরি (রহ.) বলতেন, হে আদম সন্তানেরা! যদি তুমি দুনিয়ার বস্তু পরিমাণ মতো চাও তাহলে সেটা তোমার জন্য যথেষ্ট। কিন্তু যদি পরিমাণের চেয়ে বেশি চাও, সমস্ত দুনিয়াও তোমার জন্য যথেষ্ঠ নয়।

লোভী মানুষ আল্লাহতায়ালার কোনো নিয়ামতের শোকরিয়া আদায় করে না, বরং আল্লাহ তাকে যা দান করেছেন তার চেয়ে সে আরও অনেক বেশি কিছু চায়। যদি সেটা পূর্ণ হয়ে যায়- তাহলে সে আবার নতুন করে আরেক জিনিসের প্রতি দৃষ্টি দেয়।

পক্ষান্তরে আল্লাহর মুমিন বান্দারা যে সব নেয়ামত তাদেরকে দান করা হয়েছে সেগুলোর জন্য কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে ও তাতেই সন্তুষ্ট থাকে। আর যদি পরবর্তীতে কিছু তার সম্পদ বৃদ্ধি পায় তার জন্যও সে আল্লাহর দরবারে পূর্বাপেক্ষা অধিকে কৃতজ্ঞতা আদায় করে।

ইমাম বোখারি (রহ.) এ বিষয়ে বলেন, ‘লোভী মানুষ দু’টি উৎকৃষ্ট গুণ হতে বঞ্চিত, ফলশ্রুতিতে সে দু’টি দোষের অধিকারী। এক. সে জীবনে পরিতৃপ্ত হওয়া থেকে বঞ্চিত, ফলে সে জীবন থেকে প্রশান্তিকে হাতছাড়া করেছে, দুই. লোভী যেহেতু সন্তুষ্টি হতে বঞ্চিত; ফলে সে অপরের বিশ্বাসকে খুইয়েছে। ’

ইমাম জাহাবি (রহ.) বলেছেন, ‘সেই ব্যক্তি সর্বাপেক্ষা ধনি যে লোভের আগুনে বন্দি নয়।

আপনার মতামত জানানঃ