ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  জাতীয়   »   সচিবালয়ে ঈদের আমেজ

সচিবালয়ে ঈদের আমেজ

September 15, 2016 - 9:53 AM

সচিবালয় প্রতিবেদক : সরকারি ছুটি শেষ হলেও প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু বাংলাদেশ সচিবালয়ে বৃহস্পতিবার ঈদের আমেজ বিরাজ করছে।

ঈদের ছুটি শেষে সরকারি অফিস বৃহস্পতিবার খুলেছে। তবে অধিকাংশ কর্মকর্তা-কর্মচারির অনুপস্থিতিতে সচিবালয় ছিল কার্যত ফাঁকা। শুভেচ্ছা বিনিময় ছাড়া দাপ্তরিক তেমন কোনো কাজ হয়নি সচিবালয়ে।

সচিবালয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ঘুরে এ চিত্রই দেখা গেছে।

ঈদুল আজহার নির্ধারিত সরকারি ছুটি বুধবার েশেষ হয়। বৃহস্পতিবার অফিস খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু মাঝখানে এই একদিন অফিস খোলা থাকায় অধিকাংশ কর্মকর্তা-কর্মচারী আসেননি সচিবালয়ে। দর্শণার্থীদের ভীড়ও দেখা যায়নি। সচিবালয়ের দর্শণার্থী কক্ষও ছিল ফাঁকা।

সংশ্লিষ্টরা জানান, কর্মকর্তা কর্মচারিদের অনেকেই ঈদের ছুটির সঙ্গে বৃহস্পতিবার একদিনের ছুটি নিয়ে এলাকায় পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। কর্মচারিদের অনুপস্থিতির কারণে সচিবালয়ের বেশ কয়েকটি লিফট ছিল বন্ধ। তবে এতে খুব একটা অসুবিধা হয়নি কারো। কারণ লোকের আনাগোনা ছিল না।

আগামী রোববার থেকে পুরোদমে কাজ শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন শিক্ষামন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘একদিনের জন্য দূর দূরান্তের কর্মকর্তা-কর্মচারি অনেকেই আসেননি। কেউ কেউ এই একদিনের আগাম ছুটি নিয়ে গেছেন। তাই সচিবালয় ফাঁকা মনে হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার সকালে নির্ধারিত সময়ে সচিবালয়ে আসেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ অধিকাংশ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী। তারা কর্মকর্তা কর্মচারিদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। কেউ কেউ কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে।

মন্ত্রীদের মধ্যে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়কালে বলেছেন, ‘আনন্দমুখর পরিবেশে এবার ঈদুল আজহা উদযাপিত হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।’ এজন্য তারা দেশের জনগনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। পাশাপাশি আইন শৃঙ্শলাবাহিনীর ভুয়সী প্রশংসা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয় খোলার দিনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল আগের মতোই কড়া। পাস ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। সচিবালয়ের প্রবেশমুখে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যদের বাড়তি সতর্কাবস্থায় দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।

আপনার মতামত জানানঃ