ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  লাইফস্টাইল   »   সঙ্গীর একাধিক প্রেম আছে, বুঝার উপায়

সঙ্গীর একাধিক প্রেম আছে, বুঝার উপায়

ডিসেম্বর ১, ২০২০ - ২:২৫ অপরাহ্ণ

মানুষের প্রতিটি প্রেমই তার প্রাকৃতিক নিয়ম নির্ধারিত অধিকার। সমাজ নির্মিত আইনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে, কোন কোন প্রেম। কিন্তু আবেগ অনুভূতি কী পেরেছে তা মেনে চলতে? ক’জন বিয়ের লাইসেন্স ধারী নরনারী অপরাধের কথা মনে রেখে এড়াতে পেরেছেন পরকীয়া প্রেম? ক’জনের কাছে ঘরের স্ত্রী বা স্বামীর চেয়ে পরের অল্প দেখা, অল্পজানা, স্ত্রী অথবা স্বামীর আর্কষণ বেশী বলে মনে হয়নি? ক’জন পেরেছেন ধর্ম, আইন ও সমাজ নির্দেশিত জীবন যাপন করতে?

তাই একজন পুরুষের একাধিক প্রেমিকা আছে, এটা অনেক মেয়ে মেনে নিতে পারলেও একজন নারীর একাধিক প্রেমিক রয়েছে, এটা হজম করতে পারেন না অনেকেই! একজন পুরুষ মেনেই নিতে পারেন না যে তার ভালোবাসার নারীটি গোপনে আরও এক বা একাধিক পুরুষের সাথে সম্পর্কে জড়িত। তা বোঝাটা কিন্তু খুব একটা কঠিন নয়। প্রেমিকাকে খোলাখুলি জিজ্ঞাসা করার আগে আপনি কিছু লক্ষণ দেখে বুঝে নিতে পারেন, তার জীবনে আপনিই একমাত্র পুরুষ নন।

দেখে নিন এমন কিছু লক্ষণ

*প্রেমিকা নয় বরং বন্ধুর মতো আচরণ
বান্ধবী আর প্রেমিকা এক নয়। তিনি যদি এ দুইয়ের মাঝামাঝি আচরণ করেন, তাহলে কী করবেন? অনেক নারীই বন্ধুর সাথে প্রেম করেন, বন্ধুত্ব ও প্রেম দুটোই বজায় রাখেন, সেটা আলাদা। কিন্তু আপনি যদি তার আচরণে বিভ্রান্ত হয়ে যান যে তিনি প্রেমিকা নাকি বান্ধবী, তাহলে হয়তো তিনি আপনার ব্যাপারে সিরিয়াস নন এবং অন্য কাউকে ডেট করছেন তিনি। একাধিক প্রেমিকের সাথে ডেট করছেন বলেই তিনি পুরোপুরি প্রেমিকার স্থানটাও নিচ্ছেন না, আবার বন্ধুত্বেও ফিরে যাচ্ছেন না।

*আপনার আত্মবিশ্বাস নেই
প্রেমিকাকে আকৃষ্ট করার জন্য পুরুষের সবচেয়ে বড় গুণ হলো তার আত্মবিশ্বাস। অহংকার নয় বরং আত্মবিশ্বাস এবং আত্মমর্যাদাকেই তারা প্রাধান্য দেন। আপনার আচরণ থেকেই যদি বোঝা যায় আপনি আত্মবিশ্বাসী নন, নিজেকে নিয়ে হীনমন্যতায় ভুগছেন তাহলে নিঃসন্দেহেই আপনার প্রেমিকা অন্য কোনো পুরুষের সান্নিধ্য খুঁজবে। আত্মবিশ্বাসী হোন এবং তাকে বলুন, আপনি তার একমাত্র প্রেমিক হতে চান।

*আপনার প্রেমিকা দুরত্ব বজায় রাখেন
প্রেমিকা যদি দুরত্ব বজায় রাখেন এবং সময় চান, তার মানে আসলে তিনি আপনার ব্যাপারে ততটা আগ্রহী নন। হয়তো তার অন্য কোনো প্রেমিক আছে এবং তার সাথেই তিনি সময় কাটাতে ইচ্ছুক।

*আপনারা তেমন একটা দেখা করেন না
অনেক পুরুষই ভাবেন, একবার ডেটে গেছেন তারমানে আপনাদের সম্পর্ক শক্তপোক্ত হয়ে গেছে। এমন অহংকার থেকেই তিনি আর প্রেমিকাকে তেমন সময় দেন না। এটা একটা বড় ভুল। আপনি যদি তাকে তেমন একটা সময় না দেন, আর প্রেমিকাও সেটা নিয়ে তেমন একটা অভিযোগ না করেন, তাহলে হয়তো অন্য কোনো পুরুষ তাকে সময় দিচ্ছেন।

*তিনি প্রেমিক হিসেবে আপনার পরিচয় দেন না
আপনি হয়তো তার বন্ধুমহলের সাথে দেখা করতে গেলেন। অথচ প্রেমিক হিসেবে নয়, বরং বন্ধু হিসেবেই আপনাকে বাকিদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিলেন আপনার প্রেমিকা। এটা একটা বিপদ সংকেত।

*আপনি তার বন্ধুদের চেনেন না
এটা আরও বড় একটি লক্ষণ। আপনারা বেশ কিছুদিন ডেট করছেন অথচ তার বন্ধুদের সাথে আপনার কখনোই দেখা হয়নি। হয়তো তার জীবনে আপনার স্থানটা তেমন শক্ত নয়, বা বন্ধুরা তার প্রেমিক হিসেবে অন্য কাউকে চেনেন।

*প্রেমিকা সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন
আপনি চাইছেন প্রেমিকার বন্ধু বা পরিবারের সাথে দেখা করতে, অথচ তিনি বলছেন এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না তিনি- তাহলে হয়তো আপনি তার একমাত্র প্রেমিক নন। তিনি যদি সত্যিই আপনাকে ভালোবাসেন, তাহলে কোনো সিদ্ধান্ত নিতেই সমস্যা হবে না এবং আপনাকে ঝুলিয়ে রাখবেন না তিনি।

*আপনাদের কথোপকথন একপেশে
প্রেমিকা সবসময় তার সমস্যা নিয়েই কথা বলেন। আপনি যে কোনো কথা বলতে চাইলে তিনি বলে দেন, সময় নেই। এটা অনেক বড় সমস্যা। আপনিই তার একমাত্র ‘অপশন’ নন। এ কারণে তিনি আপনাকে চাইলেই অবহেলা করতে পারেন। সময় কাটানোর জন্য হয়তো অন্য কোনো প্রেমিক রয়েছে তার।

*সম্পর্ক থমকে আছে
আপনারা প্রেম করছেন অনেক দিন হলো। কিন্তু সম্পর্কটাকে আগাতে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেন না। একে অপরের বন্ধুদের চেনেন না, কলিগদের চেনেন না, পরিবারের সাথে দেখা-সাক্ষাত্‍ নেই। ভবিষ্যতে কী করবেন তা নিয়ে আলোচনাও হচ্ছে না, তাহলে আপনার প্রেমিকা হয়তো আপনাকে নিয়ে চিন্তাই করছে না। হয়তো তিনি অন্য কারো সাথে থিতু হবার পরিকল্পনা করছেন। এমন ক্ষেত্রে তার সাথে সরাসরি আলোচনা করুন এবং সম্পর্ককে সামনের দিকে অগ্রসর হতে দিন।

*তিনি বারবার অতীতের স্মৃতিচারণ করেন
অনেক সময়ে অতীতের তিক্ত সম্পর্কের কথা বলে প্রেমিকা নিশ্চিত করতে চান, আপনিও তেমন কোনো সমস্যা করবেন না তার জীবন। কিন্তু এর আরও একটি মানে হতে পারে, তিনি আপনাকে ঠিক বিশ্বাস করেন না। এমনকি অনেক সময়ে এটাও হতে পারে যে তিনি আসলে প্রাক্তন প্রেমিকের সাথে পুরোপুরি সম্পর্কচ্ছেদ করেননি।

 

আপনার মতামত জানানঃ