ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  Uncategorized   »   শুভেচ্ছা অভিনন্দনে সিক্ত শীর্ষেন্দু

শুভেচ্ছা অভিনন্দনে সিক্ত শীর্ষেন্দু

September 27, 2016 - 12:02 PM

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : কদিন আগেও যে শিশুকে পারিবার, প্রতিবেশী আর স্কুলের শিক্ষক-সহপাঠীরই চিনত, সেই কিনা আজ সারাদেশে পরিচিতি লাভ একটি চিঠির জন্য।

পটুয়াখালীর সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিপড়–য়া শীর্ষেন্দুকে তাই দেখতে উপচেপড়া ভিড় তার বাসা ও স্কুলপ্রাঙ্গণে। জনপ্রতিনিধি থেকে প্রশাসন- সব জায়গা থেকে শুভেচ্ছা আর অভিনন্দনে সিক্ত হচ্ছে সে।

দিন-রাত পালাক্রমে বিভিন্ন সংগঠনের লোকজন তাকে অভিনন্দন-শুভেচ্ছা জানাতে তার বাসায় আসছেন। জাতীয় সংসদের হুইপও তাকে অভিনন্দন জানাতে ভুল করেননি। শীর্ষেন্দু এখন চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সব মহলে আলোচনার বিষয়।

আবেগের পাশাপাশি কৌতূহলী জিজ্ঞাসাও অনেকের মনে। চতুর্থ শ্রেণির একটি শিশুর পক্ষে প্রধানমন্ত্রী কাছে এমন চিঠি লেখা কী করে সম্ভব? তাও আবার নিজের জন্য নয়, দেশ তথা জনগণের জন্য। পাশাপাশি শিশুটির প্রতি প্রধানমন্ত্রীর উদারতা দেখেও অনেকেই আবেগাপ্লুত হয়ে বলছেন, ‘কে বলেছে বঙ্গবন্ধুর আমাদের মাঝে নেই? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তো তারই প্রতিচ্ছবি।’

গতকাল সোমবার সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া চিঠি তুলে দেন পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক একেএম শামীমুল হক সিদ্দিকী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতারাও। শুধু সরকারি দলের প্রতিনিধিরা নন, শীর্ষেন্দুকে এক নজর দেখতে সব শ্রেণির মানুষের সমাগম ঘটে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায় শীর্ষেন্দুকে উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত পড়াশোনার দায়িত্ব নেন জেলা প্রশাসক। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ খান মোশারফ তাকে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন। অনেকেই শীর্ষেন্দুকে আদর করে কোলে নিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। যে যার ভাষায় তাকে শুভেচ্ছা-অভিনন্দন জানান।

প্রসঙ্গত, শীর্ষেন্দুর মা শিলা রানীর সঙ্গে গত ১৩ আগস্ট শীর্ষেন্দু নিজ গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার আওরাবুনিয়া থেকে পটুয়াখালী আসার পথে পায়রা নদী পার হতে গিয়ে বৈরী আবহাওয়ায় ভয় পেয়ে যায়। ১৫ আগস্ট রাতে পায়রা নদীতে একটি ব্রিজ নির্মাণের অনুরোধ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নিজ হাতে একটি চিঠি লিখে সে। প্রধানমন্ত্রীও শীর্ষেন্দুর চিঠি পেয়ে আনন্দিত হয়ে চিঠির জবাব ও পায়রা নদীতে ব্রিজ করে দেওয়ার আশ্বাস দেন শীর্ষেন্দুকে। ২৬ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সেই চিঠি আনুষ্ঠানিকভাবে শীর্ষেন্দুর হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আপনার মতামত জানানঃ