ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   লা লিগায় গত সপ্তাহে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রিয়াল বেতিসকে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বার্সেলোনা

লা লিগায় গত সপ্তাহে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রিয়াল বেতিসকে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বার্সেলোনা

August 29, 2016 - 5:08 AM

ক্রীড়া ডেস্ক : লা লিগায় গত সপ্তাহে নিজেদের প্রথম ম্যাচে রিয়াল বেতিসকে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বার্সেলোনা। সপ্তাহ ঘুরতেই মুদ্রার উল্টোপিঠও দেখল লুইস এনরিকের দল।

রোববার রাতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে বার্সেলোনার ফরোয়ার্ডরা গোল মিসের মহড়ায় মেতে উঠলেন। প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিক করা লুইস সুয়ারেজকে দেখা গেল একবারেই বিবর্ণ। লিওনেল মেসিও থাকলেন অনুজ্জ্বল। ইভান রাকিটিচের একমাত্র গোলে অবশ্য পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়েই মাঠ ছেড়েছে গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়নরা।

সান মামেসে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ছিল লা লিগায় মেসির ৩৫০তম ম্যাচ। গোল করতে না পারলেও মাইলফলকের ম্যাচটি জয় দিয়েই রাঙিয়ে রাখলেন বার্সেলোনার সেরা তারকা।

তবে ম্যাচটি বেশি তৃপ্তি দেওয়ার কথা বার্সার গোলকিপার মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেনকে। এই মাঠেই যে গত মৌসুমে স্প্যানিশ সুপার কাপের প্রথম লেগে স্বাগতিকদের কাছে ৪-০ গোলে হেরেছিল বার্সা। সেদিনের পর তো বার্সার গোলবারের নিচে স্টেগেনের সামর্থ্য নিয়েই প্রশ্ন উঠেছিল।

এখন বার্সার প্রথম পছন্দ এই জার্মান গোলকিপারই। গত সপ্তাহে বার্সা ছেড়ে ম্যানচেস্টার সিটিতে চলে গেছেন চিলিয়ান গোলকিপার ক্লদিও ব্রাভো। তার অভাব পূরণ করতে ক্লাবটি ন্যু ক্যাম্পে এনেছে ডাচ গোলকিপার জাসপার সিলিসেনকে।

রোববার রাতে ম্যাচের ২১ মিনিটে রাকিটিচের চমৎকার হেডে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। বাঁ-দিক থেকে আরদা তুরানের দারুণ ক্রস ছয় গজ বক্সের সামনে থেকে হেডে জালে জড়িয়ে দেন ক্রোয়েশিয়ার এই মিডফিল্ডার।

বিরতিতে যাওয়ার আগে ব্যবধান দ্বিগুণ করার সহজ একটি সুযোগ পান তুরান। কিন্তু মেসির পাস ছয় গজ বক্সের বাঁদিকে ফাঁকায় পেয়েও পাশের জালে মারেন তুর্কি মিডফিল্ডার। স্বাগতিকরাও সমতায় ফেরার সুযোগ পেয়েছিল। তবে বিলবাও স্ট্রাইকার আরিজ আদুরিজের শট ঠেকিয়ে দেন স্টেগেন।

বিরতির পর ৫৫ মিনিটে মেসির শট পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে চলে যায়। খানিক বাদে আরেকটি সুযোগ পেয়েছিল আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। তবে এবার ফাঁকায় বল পেয়েও ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন পাঁচবারের বর্ষসেরা এই খেলোয়াড়।

এরপর বাকি সময়েও বেশ কিছু সুযোগ নষ্ট করেছে বার্সার খেলোয়াড়েরা। যোগ করা সময়ে তো সবচেয়ে সহজ সুযোগটিই হাতছাড়া করেন সুয়ারেজ। ফাঁকায় বল পেয়েও দুর্বল শট নেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। ফলে শেষ পর্যন্ত আর ব্যবধান বাড়াতে পারেনি অতিথিরা। লা লিগায় বার্সার এ নিয়ে বিপক্ষে টানা ষষ্ঠ ম্যাচ হারল বিলবাও।

দ্বিতীয় রাউন্ড শেষে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ ও লাস পালমাসের পয়েন্ট সমান ৬। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে পালমাস পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে, বার্সা দুইয়ে ও রিয়াল তিনে রয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ