ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  Uncategorized   »   লালমোহনে প্রতিদিন কোটি টাকার ইলিশ বিক্রি

লালমোহনে প্রতিদিন কোটি টাকার ইলিশ বিক্রি

September 21, 2016 - 1:38 PM

এম এ হান্নান/সুমন সরদার ॥
দ্বীপ জেলা ভোলা লালমোহন উপজেলা লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের, মেঘনা নদী থেকে সরাসরি ঘাটে আসছে রুপালী ইলিশ। এরপর নৌকা ও ট্রলার থেকে নামিয়ে ইলিশ আনা হচ্ছে আড়তে। সেখানে দর কষাকষি শেষ পাইকারি ব্যবসায়ীরা ঝুরি ঝুরি ইলিশ। এভাবেই প্রতিদিন ভোর রাত থেকে দুপুর পর্যন্ত প্রচুর পরিমানের ইলিশ আসছে ভোলা লালমোহন উপজেলা লর্ডহার্ডিঞ্জের সুলিজ ঘাটে। সেইসঙ্গে চলছে সারাক্ষণ তীর কোলাহল। ইলিশের প্রচুর সমারোহ বাভে কেবল সুলিজ ঘাটেই নয়,দেখা গেলো ভোলা লালমোহন কয়েটি ঘাটে প্রতিদিন কোটি টাকা বেশি বিক্রি হয় ইলিশ।hannan-news-21-09-16-1-3

দেখা গেলো ভোলা লালমোহন মেঘনা ঘাট হল,সুলিজ বাজার ঘাট,চাদপুর সরকারি খাল,ছোরা খাল, বুড়দোন ঘাট,কামার খাল ঘাট,বাতিখাল ঘাট,বেতুয়া, কুমার খালি ঘাটেও। সরেজমিনে এসব ঘাট ঘুরে জানা যায়, ইলিশের প্রাচুর থাকায় এসব ঘাটে দৈনিক বর্তমানে প্রায় কোটি টাকার কেনাবেচা হচ্ছে। তবে দর অনেক চরা। ঘাটের জেলে ও আড়ৎদারদের সঙ্গে আলাপে জানা গেলো, চলতি মৌসুম লালমোহন জেলেদের জালে ধরা পড়ছে ঝাকে ঝাকে ইলিশ। মেঘনায় নদীতে ইলিশের বিপুল সমারোহ, তাই ঘরে বসে থাকার সময় নেই কারো।মাছ ধরা, বিক্রি আর পরিবহন নিয়ে তুমুল ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন মৎস্যজীবীরা। সুলিজ ঘাটের ব্যবসায়ী মোঃ আবাইলি সিদ্দার জানান এ ঘাটে ১০ টি আড়ৎ রয়েছে। এসব আড়ৎ থেকে দিনে ৪০/৪৫ ঝুড়ি ইলিশ লঞ্জদিয়ে ঢাকায় যাচ্ছে। এর মূল্য প্রায় ৫৫ থেকে ৬০ লাখ টাকা। স্থানীয় এসব আড়তে ১ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের বড় সাইজের ইলিশ ১৫০০-২০০০হাজার টাকা হালি, ৭০০-৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের হালি ৬৫০-৮০০ টাকা এবং ৫০০-৬০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ হালি ৬০০-৭০০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে খুচরা ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে আরো চরা দাম দিয়ে।hannan-news-21-09-16-1-2

আড়দের ব্যবসায়ীরা জানান, জেলে থেকে স্থানীয় আড়ৎ,সেখান থেকে পাইকার,পাইকার থেকে বেপারি,সেখান থেকে ঢাকার আড়ৎ এবং পরে খুরচা বাজারে যেতে অন্তত লালমোহন ইলিশ ৬ বার হাতবদল হয়।ফলে সাধারন ভোক্তাদের চরা দামে কিনতে হচ্ছে জাতীয় মাছ। তবে এজন্য লঞ্জ ভাড়া বৃদ্ধি,দস্যু উপদ্রব ও পরিবহন ভারা বৃদ্ধিকে আড়ৎদার আবাইলি, ইসুফ ডিলার কাশিম মেম্বার,। তারা জানান মৌসুমের শুরুতে দেখা না মিললেও এখন মেঘনার নদীতে প্রাচুর পরিমানের ইলিশ মিলছে। তবে পরিবহন ভারা বৃদ্ধি ও লঞ্জ সংকটের কারনে প্রায়ই বিড়ম্বনায়। পড়তে হয়। এছারা বর্তমানে দস্যুদের

ছবির ক্যাপশন ঃ ঝুরি ঝুরি ইলিশ। এভাবেই প্রতিদিন ভোর রাত থেকে দুপুর পর্যন্ত ॥

আপনার মতামত জানানঃ