ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   রানওয়েতে কৃষ্ণাঙ্গদের বিক্ষোভে অচল লন্ডন বিমানবন্দর

রানওয়েতে কৃষ্ণাঙ্গদের বিক্ষোভে অচল লন্ডন বিমানবন্দর

September 6, 2016 - 3:54 PM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : `দ্য ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার` নামে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভের কারণে লন্ডন সিটি এয়ারপোর্টে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে সংগঠনরটির যুক্তরাজ্য শাখার কর্মীরা বিমানবন্দরের রানওয়েতে অবস্থান নিলে এ অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় ৯ বিক্ষোভকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

দ্য ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার ইউকে এক টুইটার বার্তায় জানিয়েছে, কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর যুক্তরাজ্যের জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত প্রভাব ও অভিবাসী সংকটের প্রতিবাদ জানাতে তারা এ কর্মসূচি পালন করেছে।

মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ভোরে ৯ বিক্ষোভকারী রানওয়েতে একে অপরের সঙ্গে লেগে শুয়ে পড়ে। ভোর ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ পুলিশে খবর দেয়। এসময় বিমানবন্দরে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে কয়েক ডজন ফ্লাইট বাতিল করে দিতে হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সাত বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করতে পারলেও ঝামেলায় পড়তে হয় বাঁশের ট্রাইপডের ওপর অবস্থান নেয়া দুজনের ক্ষেত্রে। প্রায় ছয় ঘন্টা পর বিমানের ভ্রাম্যমান সিড়ি ব্যবহার করে ওই দুজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার ইউকে’র পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘যখন লন্ডন সিটি এয়ারপোর্টে অভিজাতরা বিমানে চলাচল করতে পারছেন, তখন কেবল ২০১৬ সালেই ৩ হাজার ১৭৬ জন অভিবাসী ভূমধ্যসাগরে নিখোঁজ হয়েছেন কিংবা মারা গেছেন। এ বর্ণবাদী জলবায়ু সংকটের দিনে কৃষ্ণাঙ্গদেরকেই প্রথমে মরতে হয়, তারা সর্বপ্রথম উড়তে পারাদের তালিকায় নেই।’

বিবিসি লন্ডনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারের সদস্য জোশুয়া ভিরাসামি বলেন, ‘এ বিমানবন্দরটি কৃষ্ণাঙ্গ কমিউনিটি অধ্যুষিত এলাকায় অবস্থিত। জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী এমন কারখানাগুলোর সবচেয়ে কাছে ব্রিটেনের ২৮ শতাংশ কৃষ্ণাঙ্গ বসবাস করে।’

এদিকে ফ্লাইট বাতিল করায় যাত্রীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন লন্ডন সিটি এয়ারপোর্ট কর্তৃপক্ষ। লন্ডন ডকল্যান্ডের ক্যানারি হোয়ার্ফের কাছে হওয়ায় ব্যবসায়ীদের কাছে বিমানবন্দরটি জনপ্রিয়। গত বছর ৪৩ লাখ যাত্রী বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছিলেন।

আপনার মতামত জানানঃ