ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  জাতীয়   »   রাজধানীর উত্তরখান হযরত শাহ কবির (রহঃ) মাজারের দন্দ্বের শেষ কোথায়?

রাজধানীর উত্তরখান হযরত শাহ কবির (রহঃ) মাজারের দন্দ্বের শেষ কোথায়?

নভেম্বর ১৮, ২০২০ - ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

রিপোর্ট; ভূবন মুসাফিরঃ- রাজধানীর উত্তরখান এলাকায় হযরত শাহ কবির (রহঃ) মাজারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবৎ বিবাদ চলে আসছে। একটি সূত্র থেকে জানা যায়, মাজার তদারকির দায়িত্বে ছিলেন এনামুল হাসান খান শহীদের বংশধর। এলাকাবাসী জানায়, শহীদের পরিবার খান পরিবার। করিব শাহ ছিলেন মিয়া পরিবারের লোক। শহীদ খান এই মাজারের খাদেম ছিলেন না। এখন হঠাৎ মাজারের আয় বেড়ে যাওয়ায় এনামুল হাসান খান শহীদ দাবি করেন, আমি শাহ কবির (রহঃ) এর বংশধর। আমি দীর্ঘদিন যাবৎ এই মাজার দেখা শুনা করিনি। বর্তমানে যখন দেখলাম কামাল চেয়ারম্যানসহ তার সাঙ্গ পাঙ্গরা কোটি কোটি টাকা আত্নসাৎ করেছে। এখন আমি নিজ উদ্বেগে মাজার সংস্কারে হাত দিয়েছি। অন্যদিকে কামাল চেয়ারম্যানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান এই মাজার শহীদের ও তার পরিবারের কারও নয়। এই মাজার মিয়া পরিবারের মাজার। কামাল চেয়ারম্যান জানান, আমার বাবা চেয়ারম্যান ছিলেন আমিও উত্তরখানের চেয়ারম্যান ছিলাম চেয়ারম্যান থাকার সুবাধে আমিও মাজার দেখাশোনা করেছি। আমি এনামুল হাসান খান শহীদের বাবার মত মানুষের বাড়িতে কামলা দেয়নি। শহীদের বাবা ও তার পরিবার মানুষের বাড়িতে বাড়িতে কামলা দিয়ে কিছু টাকার মালিক হওয়ার পর দুই নাম্বার খাবার সামগ্রী বাজারজাত করে আজকে কোটি কোটি টাকার মালিক। এলাকার লোক জনের কাছে জিজ্ঞাসা করলে জানতে পারবেন, আমার বাবা চেয়ারম্যান ছিলেন আমিও চেয়ারম্যান ছিলাম। আমরা মুসলিম সভ্রান্ত পরিবারের লোক। এনামুল হাসান খান শহীদ হঠাৎ টাকার কুমির বনে গেছে। তাই মানুষকে মানুষ মনে করে না। কামাল চেয়ারম্যানের এই সকল প্রতিবাদি কথা জানাতে আমাদের প্রতিনিধি ভূবন মুশাফির এনামুল হাসান খান শহীদের সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে শহিদ জানান, কামালের বাবা চোর কামালও চোর। আমাদের জমি দখল করিয়া রাখিয়াছে। বিস্তারিত অডিও রেকর্ডে শুনুন। শাহ কবির (রহঃ) মাজার পর্ব- (১) চোখ রাখুন মাজার দন্দ্বে কি হয়। গত ১৬.১১.২০২০ইং তারিখে রোজ সোমবার এনামুল হাসান খান শহীদ সংবাদ সম্মেলন করেন। আপনারা দেখতে চাইলে ও দেখতে পারেন আমাদের পোর্টালে।

Tags:

আপনার মতামত জানানঃ