ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইমসারা বাংলা   »   যৌতুকের দায়ে নববধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী-দেবর আটক

যৌতুকের দায়ে নববধূকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী-দেবর আটক

অক্টোবর ২, ২০২০ - ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ

ময়মনসিংহ সদরের রঘুরামপুর সবজি পাড়ায় যৌতুকের জন্য নববধূকে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে
পরিবারের অভিযোগ। স্বামীর বাড়ি থেকে ওই নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদিকে নিহতের স্বামী ও দেবরকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, বিয়ের বিয়ের তিন মাসের মাথায় বৃহস্পতিবার শ্বশুরবাড়ি থেকে ওই নববধূ মাহমুদা আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্বজনরা জানায়, তিন মাস আগে ময়মনসিংহ সদর উপজেলার রঘুরামপুর সবজিপাড়ার শাহজাহান মিয়ার ছেলে সবুজ মিয়ার সাথে বিয়ে হয় রাঘবপুর পূর্বপাড়ার আব্দুল হেলিমের বড় মেয়ে মাহমুদার। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য চাপ দিতো মাহমুদার শাশুড়ি। এ নিয়ে পারিবারিক কলহ লেগেই থাকতো। বৃহস্পতিবার বিকেলে মাহমুদার মৃত্যুর খবর জানানো হয় তার বাবাকে।

যৌতুকের জন্যই শ্বাসরোধ করে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করে মাহমুদার বাবা আব্দুর হেলিম বলেন, বিয়ের পর থেকেই মাহমুদার শাশুড়ি মিডুরি বেগম তাকে যৌতুকের জন্য নির্যাতন করতো। তার কাছেও কয়েকবার টাকা চেয়েছে। কিন্তু যৌতুক দেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। মাহমুদাকে বিদ্যুতের তার দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তার গলায় দাগ আছে। বিকেলে মেয়ের সাথে ফোনে কথা বলার ১০ মিনিট পরেই তার মৃত্যুর খবর জানানো হয় তাকে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ তালুকদার জানিয়েছেন, নিহতের স্বামী সজল মিয়া ও তার ছোট ভাই সুজন মিয়াকে পুলিশ আটক করলেও শ্বশুর ও শাশুড়ি পলাতক রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিহত মাহমুদা গৌরীপুরের মোজাফফর আলী ফকির উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

আপনার মতামত জানানঃ