ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  রাজনীতিসারা বাংলা   »   মেয়রের বিরুদ্ধে লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভা

মেয়রের বিরুদ্ধে লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

আগস্ট ৩০, ২০২০ - ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ
মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ

রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্য, ডেঙ্গু, মশা নিধন, এমনকি ত্রাণের লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তারই পরিষদের অধিকাংশ কাউন্সিলরের। মেয়রের দাবি অনৈতিক সুবিধা না দেয়ায় এমন অভিযোগ।

২০১৩ ও ২০১৭ সালে তিন দফায় বদরগঞ্জ পৌরসভায় বিভিন্ন পদে ১৯ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তির শর্ত অনুযায়ী ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সসীমা নির্ধারণ করা হলেও জিপ চালক, দারোয়ান, ইলেক্ট্রিশিয়ান ও পিওন পদে নিয়োগ পায় শিক্ষাগত যোগ্যতায় পিছিয়ে থাকা ও ত্রিশোর্ধ বয়সের প্রার্থীরা। নিয়োগের পর বয়স সংশোধনের বিষয়টি স্বীকারও করে নিয়োগপ্রাপ্তদের কেউ কেউ।

এদিকে পৌর মেয়র উত্তম কুমারের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগের পাহাড় নিয়ে দপ্তরে দপ্তরে ঘুরছেন এগারো কাউন্সিলর। তাদের অভিযোগ, করোনা পরিস্থিতিতে দুঃস্থদের জন্য দু’দফায় বরাদ্দের ৭ লাখ, ডেঙ্গু প্রতিরোধে বরাদ্দের ৮ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন পৌর মেয়র।

ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি না হলেও সব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন মেয়র উত্তম কুমার সাহা। অনৈতিক সুবিধা আদায় করতে না পেরে কাউন্সিলররা ভুয়া অভিযোগ তুলেছেন বলে দাবি প্যানেল মেয়রের। আর সচিব বলছেন কেউ কোন অর্থ আত্মসাৎ করেনি।

প্যানেল মেয়র আয়শা সিদ্দিকা ফেরদৌসি বলেন, তারা যে টাকাটা চাচ্ছে এটা উনি দিচ্ছেন না বলেই তারা এমন করছে।

সচিব আবু হেনা মোর্শেদ বলেন, এখনও ফান্ডে ৮ লাখ টাকা ৮ লাখ টাকাই আছে। এক টাকাও খরচ হয়নি।

মেয়রের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, কোটি টাকার নিয়োগ বাণিজ্য, ডেঙ্গু প্রতিরোধ, মশা নিধন ও ত্রাণের নামে বরাদ্দকৃত লাখ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ এনে গত ৯ আগষ্ট জেলা প্রশাসকের কাছে অনাস্থার আবেদন করেন এগারো কাউন্সিলর।

আপনার মতামত জানানঃ