ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  প্রযুক্তি   »   মুখোমুখি হতে হয়

মুখোমুখি হতে হয়

October 1, 2016 - 12:07 PM

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ইলেকট্রনিক পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাংয়ের সময়টা মোটেই ভালো যাচ্ছে না। তা না হলে স্মার্টফোনের পর এবার ওয়াশিং মেশিন নিয়েও অভিযোগের মুখোমুখি হতে হয়?

আগস্টের শেষের দিকে বাজারে নিয়ে আসা নতুন ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন ‘গ্যালাক্সি নোট ৭’ বিস্ফোরণের ঘটনায় বিপাকে পড়ে প্রতিষ্ঠানটি। দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রে অনেক গ্রাহক স্যামসাংয়ের নতুন গ্যালাক্সি নোট ৭ স্মার্টফোন বিস্ফোরণ হওয়ার গুরুতর অভিযোগ তুলে। নতুন এই স্মার্টফোনের ব্যাটারিতে সমস্যা থাকার কথা স্বীকার ফোনটির সরবরাহ স্থগিত ও গ্রাহকদের গ্যালাক্সি নোট ৭ বদলে দেওয়ার উদ্যোগ নেয় স্যামসাং। বিস্ফোরণ কাণ্ডে বিশ্বের একাধিক বিমান ফ্লাইটে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

নতুন স্মার্টফোন নিয়ে অপ্রত্যাশিত এ ঘটনার ধাক্কা সামলানোর আগেই এবার ওয়াশিং মেশিন বিস্ফোরণ নিয়ে বিপাকে পড়েছে স্যামসাং। ওয়াশিং মেশিন বিস্ফোরণের ঘটনায় উত্তর আমেরিকায় মামলার মুখে পড়তে হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে।

মার্কিন কনজিউমার প্রোডাক্ট সুরক্ষা কমিশন নির্দিষ্ট কোনো মডেল উল্লেখ না করে ২০১১ সালের মার্চ থেকে ২০১৬ সালের এপ্রিল পর্যন্ত স্যামসাংয়ের ওয়াশিং মেশিনগুলোর বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে।

মার্কিন আইন ফার্ম প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ঝুঁকিপূর্ণ ওয়াশিং মেশিন তৈরির কারণে মামলা করেছে। যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকটি বাসায় ওয়াশিং মেশিন বিস্ফোরণের ফলে এই মামলা করা হয়।

স্যামসাং তাদের ওয়াশিং মেশিন বিস্ফোরণের বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, উত্তর আমেরিকায় ২০১১ সালের মার্চ থেকে ২০১৬ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত বাজারজাত করা বেশ কিছু টপ লোডিং ওয়াশিং মেশিনে সমস্যা আছে। তবে বিশ্বের অন্য দেশে বাজারজাত করা ওয়াশিং মেশিনে এ ধরনের কোনো সমস্যা নেই।

উত্তর আমেরিকায় স্যামসাং তাদের টপ লোডিং ওয়াশিং মেশিন গ্রাহকদের জন্য ওয়েবসাইটে বিশেষ পেজ চালু করেছে, যেখানে গ্রাহকরা সিরিয়াল নম্বর দিয়ে জেনে নিতে পারবেন তাদের ওয়াশিং মেশিনটি ঝুঁকিপূর্ণ কিনা।

তথ্যসূত্র: বিবিসি

আপনার মতামত জানানঃ