ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ধর্ম   »   মা-বাবার সেবা

মা-বাবার সেবা

অক্টোবর ১৭, ২০২০ - ৬:৩১ অপরাহ্ণ

মহান আল্লাহ তাআলার পরেই মাতা-পিতার স্থান। মা-বাবার সম্মান তুলনাহীন। ইসলাম মা-বাবাকে সর্বোচ্চ অধিকার দিয়েছে। সর্বাধিক সম্মানে ভূষিত করেছে। ইসলামের বিধানমতে, এমনকি নফল নামাজের চেয়েও মা-বাবার সেবাকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে।

সূরা লুকমানে ১৪ নং আয়াতে আল্লাহ বলেন- আমি তো মানুষকে পিতামাতার প্রতি সদাচারণের নির্দেশ দিয়েছি। কেননা, মা সন্তানকে অসীম কষ্ট করে গর্ভে ধারণ করে এবং তার দুধ ছাড়ান দু’বছরে। সুতরাং, আমার প্রতি এবং পিতামাতার প্রতি কৃতজ্ঞ হও।

সুতরাং কোরআনের এ আয়াত থেকেই স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে বাবা-মার প্রতি মমতা এবং ভালবাসার সঙ্গে আচরণের কী অসীম গুরুত্বই না আরোপ করা হয়েছে।

শুধু কোরআন নয়। রাসূল (সাঃ) পিতামাতার সাথে সদ্ব্যবহার ও সেবা করার তাগিদ দিয়েছেন।

হযরত আব্দুর রহমান বিন মাসউদ থেকে বর্ণিত এ হাদিসে (বোখারি) বলা হচ্ছে, একবার এক ব্যক্তি রাসূল (সাঃ) কে জিজ্ঞেস করলেন, হুজুর আল্লাহকে ভালবাসার জন্য আমাকে কী আমল করতে হবে?

রাসূল (সাঃ) বলেন- ওয়াক্তমত নামাজ আদায় কর।

লোকটি বললো- তারপর?

তিনি বললেন- পিতামাতার সঙ্গে উত্তম ব্যবহার কর।

-তারপর?

ধর্মকে কায়েম রাখার জন্য জ্বেহাদ কর।

আবু হুরায়রা (রা) থেকে বর্ণিত অপর একটি হাদিসে বলা হচ্ছে, রাসূল (সাঃ) বলেছেন-আল্লাহ এবং আখেরাতের প্রতি যারা ঈমান আনে তারা যেন বাবা-মায়ের সেবা করে।

আজকের দুনিয়ায় যারা ধর্মকে জীবন থেকে পৃথক করে মসজিদের ভেতরে নিয়ে গেছে-যাদের ধর্ম কেবল লেবাস আর আনুষ্ঠানিকতায় সীমাবদ্ধ তারা, একবার চোখ ‍খুলে দেখুক ধর্ম এবং জীবন একই সুতোয় গাঁথা একটি মালা।

আপনার মতামত জানানঃ