ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   বড় ভুল করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত

বড় ভুল করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত

আগস্ট ১৬, ২০২০ - ৫:১৮ অপরাহ্ণ

ইসরাইলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণার পর এ নিয়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। আমিরাত সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে শনিবার জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরে বিক্ষোভ করেন ফিলিস্তিনিরা। তেল আবিবের সঙ্গে চুক্তির সিদ্ধান্ত নেয়ায় আবুধাবি অনেক বড় ভুল করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। এরমধ্যেই শনিবার রাতে গাজায় বিমান হামলা চালায় ইসরাইলি বাহিনী।

স্থানীয় সময় শনিবার রাতে গাজার একটি আবাসিক এলাকায় আকস্মিক বিমান হামলা চালায় ইহুদি বাহিনী। হামলায় একটি আবাসিক ভবন বিধ্বস্ত হওয়ার পাশাপাশি আহত হন বেশ কয়েকজন।

ইসরাইলের দাবি, গাজার সশস্ত্রগোষ্ঠী হামাস ইসরাইলের আবাসিক এলাকা লক্ষ্য করে দুইটি রকেট হামলা চালায়। মূলত ঐ হামলার পাল্টা জবাব হিসেবেই বিমান হামলা চালানো হয়। তবে হামাসের রকেট হামলায় কি পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেবিষয়ে কিছুই জানায়নি তেল আবিব। দেশটির সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণার একদিন পরই গাজায় বিমান হামলা চালালো নেতানিয়াহু প্রশাসন।

এদিকে, ইসরাইল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্ক স্বাভাবিকের ঘোষণার ফিলিস্তিনে প্রতিবাদের ঝড় অব্যাহত আছে। শনিবার জেরুজালেমে আল আকসা মসজিদের সামনে জড়ো হন শত শত ফিলিস্তিনি। আরব আমিরাতের যুবরাজকে ‘ইহুদিদের দালাল’ আখ্যা দিয়ে কুশপুত্তলিকা দাহ করে বিক্ষোভকারীরা।

প্যালেস্টাইন লেবারেশন অর্গানাইজেশন-পিএলও এর সদস্য মুস্তফা বারঘৌতি বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে আরব আমিরাতের চুক্তির প্রতিবাদের মূল কারণ হলো এই চুক্তিতে প্রকৃত সমস্যা তুলে ধরা হয়নি। ইসরাইল অবৈধ দখলদারিত্ব অব্যাহত রেখেছে। এই চুক্তি শান্তি প্রতিষ্ঠায় কোনোভাবেই কাজে আসবে না। বরং দ্বীরাষ্ট্র সমাধানের চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যাবে।

বিক্ষোভ হয়েছে ইরানেরও। তেহরানে সংযুক্ত আমিরাতের দূতাবাসের সামনে জড়ো হয়ে চুক্তির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান কয়েকশ’ বিক্ষোভকারী। ইসরাইলের সঙ্গে আরব আমিরাতের সম্পর্ক স্বাভাবিকের ঘোষণা ভালো চোখে দেখছে না তেহরান। এক সংবাদ সম্মেলনে আমিরাত সরকারকে সতর্ক কোরে ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, এই চুক্তির জন্য চরম মাশুল দিতে হবে আবুধাবিকে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, প্রথমত বলতে চাই, আমিরাত সরকার চরম একটা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে তারা প্রতারণা করেছে। সমগ্র মুসলিম জাতিকে ধোঁকা দেয়া হয়েছে। আরব আমিরাতকে বলতে চাই, ইসরাইলকে এই অঞ্চলে আমন্ত্রণ করবেন না। এর জন্য পরে আফসোস করা ছাড়া কিছুই করার থাকবে না।

ইরান ক্ষুব্ধ হলেও এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে মিশর, জর্ডান ও বাহরাইনসহ অন্যান্য দেশ।

আপনার মতামত জানানঃ