ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ধর্ম   »   ব্যবসায়িক কার্যক্রমে রাসুল (সা.)

ব্যবসায়িক কার্যক্রমে রাসুল (সা.)

অক্টোবর ১৫, ২০২০ - ৬:৫৯ অপরাহ্ণ

কোরআন ও হাদিসে ব্যবসার প্রতি সর্বাধিত গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তাতে বোঝা যায়, ব্যবসা অন্য যেকোনো পেশার চেয়ে শ্রেষ্ঠ পেশা। তবে ব্যবসা অবশ্যই শরিয়ত ও সুন্নত মোতাবেক হতে হবে। ব্যবসায় মগ্ন হয়ে কিছুতেই আল্লাহর স্মরণ থেকে গাফেল হওয়া যাবে না।

রাসুল (সা.) ইসলামী জ্ঞান- চর্চা, দ্বীনি দাওয়াত ও আল্লাহর ইবাদতের জন্য মদিনায় মসজিদ নির্মাণ করেন। পাশাপাশি মানুষের অর্থনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মদিনায় তিনি ইসলামী বাজার প্রতিষ্ঠা করেন।

বনু কায়নুকার বাজারটি পরিচালনার দায়িত্বভার মহানবী (সা) নিজেই নিয়েছিলেন। বাজারটির বৈশিষ্ট্য ছিল, এখানে কোনো রকম ধোঁকা-প্রতারণা, ঠকবাজি, মাপে কম-বেশি করার বা পণ্যদ্রব্য মজুদ অথবা আটক করে কৃত্রিম মূল্যবৃদ্ধি করে জনগণকে কষ্ট দেওয়ার সুযোগই ছিল না।

আবু হুরায়রা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুল (সা.) একদিন এক বিক্রেতার খাদ্যের স্তূপের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন, তখন তিনি তার হাত ওই খাদ্যের স্তূপে প্রবেশ করান, এতে তার হাত ভিজে গেল এবং অনুপযুক্ত খাদ্যের সন্ধান পেলেন। তখন রাসুল (সা.) ইরশাদ করলেন, ‘হে খাদ্য বিক্রেতা! এগুলো কী?’ তখন সে বলল, হে আল্লাহর রাসুল! খাদ্যগুলো বৃষ্টিতে ভিজে গেছে। রাসুল (সা.) ইরশাদ করলেন, ‘তুমি এই ভেজা খাদ্যগুলো ওপরে রাখনি কেন, যাতে সবাই তা দেখে নিতে পারে? যে ব্যক্তি কাউকে ধোঁকা দেবে সে আমার উম্মত নয়। ’ (মুসলিম, হাদিস : ১০২)

অন্য হাদিসে রাসুল (সা.) ইরশাদ করেন, ‘হে ব্যবসায়ীরা! তোমরা মিথ্যা কথা ও মিথ্যা কারবার থেকে অবশ্যই দূরে থাকবে। (তাবরানি)

রাসুল (সা.)-এর সার্বিক তত্ত্বাবধান ও সাহাবায়ে কেরামের সততা ও ন্যায়-নিষ্ঠার কারণে মদিনার বাজার ছিল পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ বাজার। যেখানে জগদ্বিখ্যাত সাহাবি ও ব্যবসায়ী উসমান ইবনে আফফান (রা.) ও আবু আউয়ুব আনসারিসহ (রা.) আরো অন্যান্য সাহাবিরা ব্যবসা করতেন। যারা নৈতিকতা ও নিষ্ঠাপূর্ণ ব্যবসার পাশাপাশি ইবাদত-বন্দেগি ও দান-সেবার ক্ষেত্রেও ছিলেন সর্বাগ্রে।

আপনার মতামত জানানঃ