ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  বিনোদন   »   বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে অনেক দিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল

বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে অনেক দিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল

September 21, 2016 - 7:54 AM

বিনোদন ডেস্ক : বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে অনেক দিন ধরেই গুঞ্জন চলছিল। অবশেষে ব্র্যাড পিটের কাছ থেকে বিবাহ বিচ্ছেদ চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি।

দীর্ঘ ১২ বছর একসঙ্গে ছিলেন ব্র্যাড-জোলি। সবার কাছে তারা ‘ব্র্যাঞ্জোলিনা’ নামেই পরিচিত। আদালতের নথি অনুযায়ী বিয়ের প্রায় দুই বছর এক মাস পর গত ১৫ সেপ্টেম্বর আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এ জুটি।

‘ব্র্যাঞ্জোলিনা’ দম্পতির ছয় সন্তান- ম্যাডক্স (১৫), প্যাক্স (১২), জাহারা (১১), শিলোহ (১০), নক্স (৮), ভিভিয়েন (৮)। এরমধ্যে প্রথম তিন সন্তানকে দত্তক নিয়েছিলেন এ জুটি। সন্তানদের দেখভালের দায়িত্ব চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন জোলি। তবে ব্র্যাড ইচ্ছে করলেই সন্তানদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন বলে সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিচ্ছেদের পর বিভিন্ন গহনা, ব্যক্তিগত জিনিস এবং অন্যান্য সম্পদের বিষয়ে সুরাহা পরে হবে বলে জানা গেছে।

এদিকে একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকা তাদের প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ছয় সন্তানের দেখভাল নিয়ে মামলা হতে পারে। যদিও এ দম্পতির কাছের একজনের ভাষ্য মতে, সেচ্ছায় বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ‘ব্র্যাঞ্জেলিনা’।

তবে এই দুই তারকার বিচ্ছেদ কোনো পরকীয়া-সংক্রান্ত কারণে হচ্ছে না বলে নিশ্চিত করেছেন জোলির আইনজীবী। একটি মার্কিন ট্যাবলয়েড এ জুটির বিচ্ছেদের কারণ হিসেবে জানিয়েছে, ব্র্যাড নাকি সন্তানদের প্রতি উদাসীন। ব্র্যাডের জীবনযাপনের ধরনে মোটেও খুশি নন জোলি। তার জীবনযাপনের প্রভাব সন্তানদের ওপর পড়তে পারে। তাই এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন জোলি।

অন্য একটি পত্রিকার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জোলি নাকি তার স্বাস্থ্যের ব্যাপারে মোটেও সচেতন নন। তিনি নাকি অতিরিক্ত ধূমপান করেন। বিষয়টি পছন্দ নয় ব্র্যাডের। তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়াতেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

২০০৪ সালে মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ সিনেমার শুটিং সেটে বন্ধুত্ব হয় ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলির। তখন জেনিফার অ্যানিস্টনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন পিট। ২০০৫ সালে পিট-অ্যানিস্টনের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। পরবর্তীতে পিট-জোলির মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। দীর্ঘ দশ বছর একসঙ্গে থাকার পর ২০১৪ সালে আগস্টে বিয়ে করেন পিট-জোলি।

আপনার মতামত জানানঃ