ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল ভারত

বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল ভারত

সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ - ৬:৩৭ অপরাহ্ণ

বিতর্কিত কৃষি আইন পাশের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল ভারত। সোমবার নয়াদিল্লি, বেঙ্গালুরুসহ বিভিন্ন শহরে বিরোধীদের পাশাপাশি কৃষকরা বিক্ষোভ করেন। অনতিবিলম্বে কৃষকের স্বার্থবিরোধী আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

তবে কৃষি আইনকে ‘ঐতিহাসিক ও প্রয়োজনীয়’ আখ্যা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিকে, বিল পাশ নিয়ে বিরোধিতা ও হট্টগোলের কারণে রাজ্যসভার আট সাংসদকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

দীর্ঘদিন পর আবারো উত্তাল ভারতের রাজপথ। সোমবার রাজধানী নয়াদিল্লিতে বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে আসেন কৃষকসহ বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা। ‘অত্যাবশ্যক পণ্য আইন সংশোধন’, ‘কৃষি পণ্য লেনদেন ও বাণিজ্য উন্নয়ন’ এবং কৃষিপণ্যের দাম নিশ্চিত করতে ‘কৃষকদের সুরক্ষা ও ক্ষমতায়ন চুক্তি’ নামে রোববার রাজ্যসভায় পাশা হওয়া বিল তিনটিকে কৃষকদের মৃত্যু পরোয়ানা আখ্যা দিয়েছেন বিরোধীরা। বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশ বাঁধা দিলে এক পর্যায়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি হয়।

কৃষিকে বেসরকারিকরণের মাধ্যমে বহুজাতিক কোম্পানির হাতে তুলে দিলে কৃষকরা তাদের কাছে নিগৃহীত হবে। যে কোনো সময় তারা পণ্যের গুণাগুণের দোহায় দিয়ে চুক্তি বাতিল করতে পারে। কৃষকরা তখন কোথায় যাবে?

বিতর্কিত আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হয় বেঙ্গালুরুতেও। কমিউনিস্ট পার্টিসহ বিরোধী নেতারা রাস্তায় নেমে মোদি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। আইন বিরোধীদের দাবি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কৃষকদের দীর্ঘমেয়াদী চুক্তির সুযোগ রেখে যে আইন পাশ করা হয়েছে এর কারণে কৃষকদের ওপর কর্তৃত্ব বাড়াবে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানগুলো।

তবে সরকারের দাবি, আইন পাশের কারণে বড় প্রতিষ্ঠান ও ওয়ালমার্ট ডব্লিউ এমটিএনের মতো খুচরা বিক্রেতাদের কাছে কোন মধ্যস্থতাকারী ছাড়াই সরাসরি পণ্য বিক্রি করতে পারবেন কৃষকরা। আইনের পক্ষে সাফাই গেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, এই আইনের কৃষকদের ঐক্যবদ্ধ করবে।

এদিকে, রাজ্যসভায় কৃষি বিল পাশ নিয়ে বিরোধিতা ও হট্টগোলে ৮ সাংসদকে চলতি সংসদ অধিবেশনের বাকি দিনগুলোর জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃতদের মধ্যে তৃণমূলের ডেরেক ও’ ব্রায়েন ও দোলা সেন, কংগ্রেসের রাজীব শতাভ, রিপুন বরা ও সৈয়দ নাসির হুসেন, সিপিএমের কে কে রাগেশ ও এলাম আরাম করিম এবং আম আদমি পার্টির সঞ্জয় সিং রয়েছেন। বহিষ্কারের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে সংসদ ভবনের বাইরে ধর্নায় বসেছেন বহিষ্কৃত আট সাংসদ-সহ বিরোধীরা।

আপনার মতামত জানানঃ