ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  লাইফস্টাইল   »   বন্ধু নির্বাচনে মেয়েদের যা জানা জরুরি

বন্ধু নির্বাচনে মেয়েদের যা জানা জরুরি

নভেম্বর ২০, ২০২০ - ৮:১২ অপরাহ্ণ

বেস্ট ফ্রেন্ড খুঁজে নেওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি থাকে মেয়েদের মধ্যে। বিশেষত টিনএজ বয়সে। মেয়েরা ধরেই নেয় এই বন্ধুত্ব একদম খাঁটি। আর এমন বন্ধন সবদিন থাকবে। মেয়েরা ধরেই নেয়, বেস্ট ফ্রেন্ড মানে তার সঙ্গে কোনওদিন ঝগড়া হবে না। সবসময় মতের মিল থাকবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এই সব শর্ত মেনে কোনও সম্পর্কই টেকে না। অবশ্যই দুজন মেয়ে ভালো বন্ধু হতে পারেন। একে অপরকে ভালো উপদেশও দেন। কিন্তু এটা ধরে নেওয়া ভুল যে দুজন মেয়ে সবসময়ই খুব ভালো বন্ধু হবেন। একজনের খুশির জন্য, অন্যজন তাঁর অনিচ্ছা সত্বেও সবকিছু করে যাবেন এটা ঠিক নয়। এছাড়াও অনেক অভিভাবক ছোট থেকেই মেয়েদের শেখান ছেলেদের সঙ্গে মিশতে না। এর ফলে মেয়েদের মনে ছেলেদের সম্পর্কে বেশ কিছু খারাপ ধারণা জন্মায়য। একজন ছেলেও একটি মেয়ের খুব ভালো বন্ধু হতে পারে, ছোট থেকেই সন্তানকে এই বিষয়ে সচেতন করতে হবে। বন্ধুত্বের আসল অর্থ কিন্তু অভিভাবকদেরই বোঝাতে হবে। নইলে তৈরি হতে পারে বিরূপ মানসিকতা।

  • খাঁটি বন্ধুত্ব কখনও হয় না

বন্ধুত্বের মতো দামি কোনও সম্পর্ক হয় না এই কথা যেমন ঠিক তেমনই আমাদের বন্ধত্ব সবচেয়ে খাঁটি এমন কথাও বলা যায় না। প্রত্যেকের সঙ্গেই ভালো সম্পর্ক রাখার চেষ্টা করুন। অবশ্যই এমন একজন কোনও বন্ধু থাকবে আপনার জীবনে যাঁর সঙ্গে আপনি সবি শেযার করতে পারবেন, তবুও দিনের শেষে সব মানুষই আলাদা। সবার মানসিকতায় ফারাক থাকে। আর তাই বার বার বন্ধু বদল করবেন না

কোনও বন্ধুর সঙ্গে আপনার ঘুরতে গিয়ে আলাপ হয়েছে। কিংবা সিনেমা দেখতে গিয়ে আলাপ। এবার তাঁর সঙ্গে কথা বলে আপনার হয়তো মনে হয়েছে এতদিনে আমার মতো বন্ধু পেয়েছি। এরপর সেই বন্ধুর সঙ্গে আপনার গলায় গলায় ভাব। একসঙ্গে ঘোরা, খেতে যাওয়া, পার্টি। কিন্তু দুদিন পরই মনে হল মিথ্যে কথা বলছে। বারবার কফি খাওয়ার পয়সা আপনাকেই দিতে হচ্ছে। এরপর সেই বন্ধুত্বে ছেদ পড়ে যায়। এমনকাছের বন্ধু না বানানোই ভালো।

  • তুলনা কখনই আনবেন না

যে কোনও সম্পর্কেই তুলনা খুব খারাপ। বন্ধুত্ব বই কিংবা সিনেমা নয় যে এই তুলনা করার অভ্যেস থাকবে। আগের বেস্ট ফ্রেন্ড ভালো ছিল, এই বন্ধু ভালো নয় সন্তানের মধ্যে যাতে এরকম ধারণা গড়ে না ওঠে তাই আগেভাগেই সতর্ক হতে হবে। এছাড়াও বেস্ট ফ্রেন্ড কেন বেশি পেল, তুই কেন খারাপ এই তুলনায় মা-বাবার একদমই যাওয়া ঠিক নয়। কারোর কোনও ভালো গুণ থাকলে তার উদাহরণ অবশ্যই সন্তানকে দেবেন। কিন্তু আপনার সন্তান ছাড়া বাকিরা সবাই খুব ভালো, এরকম পরিবেশ তৈরি করবেন না।

  • মেয়েদের মনের খুব বেশি পরিবর্তন হয়

মেয়েদের মনের পরিবর্তন হতে খুব বেশি সময় লাগে না। প্রায়শই সব মেয়েদের মধ্যে এই সমস্যা দেখা যায়। আজ যাকে খুব ভালো লাগছে, দুদিন পর মনে হবে জীবনে বন্ধু বাছাইতে ভুল হয়েছে। আর যে কারণে মেয়েদের মধ্যে এত সমস্যা। কোনও মেয়েই খুব সোজা মনে সব কিছু গ্রহণ কতে পারে না। একটু এদিক-ওদিক হলেই তাঁদের মনে উঁকি দেয় অনেক প্রশ্ন। খুব সহজেই সন্দেহ করতে শুরু করে মেয়েরা। আর কোনও সম্পর্কে সন্দেহ আসলে তা ভাঙতে বাধ্য। ফলে মেয়েরা কখনই প্রিয় বন্ধু বাছাই করতে যাবেন না।

  • বন্ধুত্বও ভাঙতে পারে

প্রেমের মতো বন্ধুত্বও ভাঙতে পারে। হতে পারে কোন কারণে দুই বন্ধুর মধ্যে দূরত্ব বেড়েছে, দুজন আলাদা শহরে থাকছেন নানা কারণেই বন্ধুত্ব ভাঙতে পারে। আর তাই কোনও সম্পর্কে ব্রেক আপ মানেই প্রতারণা নয়। প্রিয় বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্ক কোনও কারণে না থাকতেই পারে, তা বলে তাঁর চরিত্রকে ভুল বলে দাগিয়ে দেবেন না। কিংবা কোনও বিরূপ মন্তব্য করবেন না। বন্ধুর সম্মান বজায় রাখাও আপনার দায়িত্ব। বন্ধুত্ব ভেঙে গেছেই বলে কোনও মানুষ খারাপ, বিষয়টা এমন নয়।

  • বয়ফ্রেন্ড আর বন্ধুকে গুলিয়ে ফেলবেন না

ধরা যাক, আপনার প্রিয় বন্ধু সিঙ্গল। এদিকে আপনার বয়ফ্রেন্ড রয়েছে। আর তাই বন্ধুর মন রাখতে সবসময় বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে বন্ধুকে নিয়ে বেরোবেন না। বন্ধুকে অত্যধিক সময় আর বয়ফ্রেন্ডকে একদম সময় দেবেন না, এমনটাও করবেন না। ঠিক তেমনই আপনাদের সম্পর্ক নিয়ে যাতে বেস্ট ফ্রেন্ড বিশেষ কোনও মন্তব্য না করেন, সেদিকেও খেয়াল রাখুন। কার সঙ্গে কীভাবে মিশবেন, তা আপনাকেই ঠিক করতে হবে।

আপনার মতামত জানানঃ