ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   বন্ধুর সঙ্গে রাত কাটাতে স্ত্রীকে মাদক খাওয়ালেন স্বামী

বন্ধুর সঙ্গে রাত কাটাতে স্ত্রীকে মাদক খাওয়ালেন স্বামী

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০ - ১২:০১ অপরাহ্ণ
বন্ধুর সঙ্গে রাত কাটাতে স্ত্রীকে মাদক খাওয়ালেন স্বামী

টাকার লোভে স্ত্রীকে বন্ধুর সঙ্গে জোর করে রাত কাটাতে বাধ্য করার চেষ্টা করেন মাদকাসক্ত স্বামী। কিন্তু রাজি না হওয়ায় শারীরিক নির্যাতনের পর জোর করে মাদকদ্রব্য খাইয়ে দেন স্ত্রীকে। সেদিন কোন রকমে পালিয়ে নিজের সম্ভ্রম রক্ষা করেন হতভাগা সেই স্ত্রী। পরে ভুক্তভোগী ওই নারী স্বামীসহ দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তবে পুলিশ অভিযুক্তদের কাউকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি। রাজশাহীর তানোরে ঘটেছে এমন ঘটনা।

রাজশাহীর তানোর উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের উসমান আলীর বড় মেয়ে ময়না খাতুন মুক্তা। ১১ বছর আগে একই এলাকার ওসমান গনির সাথে তার বিয়ে হয়। এরপর থেকে স্ত্রীকে প্রায় শারীরিক নির্যাতন করতেন তিনি। সবশেষ গত ৩ সেপ্টেম্বর ওসমান তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিস সহকারি আরিফকে রাতে দাওয়াত করে বাসায় নিয়ে আসেন।

এরপর টাকার লোভে স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনের পর জোর করে নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে বন্ধুর সাথে রাত্রিযাপন করতে বলেন। কোন মতে বান্ধবীর বাড়িতে পালিয়ে সেদিন ইজ্জত রক্ষা করেন মুক্তা। বাধ্য হয়ে গেল ৯ সেপ্টেম্বর তানোর থানায় স্বামীসহ দুজনের বিরুদ্ধে মামলা করলে গা ঢাকা দেয় তারা।

ভুক্তভোগী ময়না খাতুন মুক্তা বলেন, আমার স্বামী ধরে থাকে, তার বন্ধু আরিফ ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমি সেখান থেকে পরে পালিয়ে চলে যায়।

ভুক্তভোগী ময়নার বাবা বলেন, বিভিন্ন দিক দিয়ে আতঙ্কে আছি। আমাদের শাসন করছে আসামিও আর টিএনও।

রাজশাহী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানোর সুশান্ত কুমার মাহাতো তার অফিস সহকারি আরিফকে বাঁচাতে মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন বলে ভুক্তভোগীর পরিবার অভিযোগ করলেও বিষয়টি অবগত নন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগী ওই নারীর পরিবার ও গ্রামবাসী।

গ্রামবাসীদের একজন বলেন, ‘বাবা মায়ের পর একটা মেয়ে তার স্বামীর ওপরই ভরসা করে। সেই স্বামীর কাছেই যদি নিরাপত্তা না পায় তাহলে কোথায় পাবে?’

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান রাজশাহী পুলিশ সুপার মো. শহীদুল্লাহ।

ভবঘুরে লম্পট ওসমান গনির আরো দুটি সংসার আছে।

আপনার মতামত জানানঃ