ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  শিক্ষা   »   বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রীর ছবি না থাকলেও নিজের ছবি টাঙ্গিয়েছেন প্রধান শিক্ষিকা

বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রীর ছবি না থাকলেও নিজের ছবি টাঙ্গিয়েছেন প্রধান শিক্ষিকা

September 8, 2016 - 3:45 PM

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ জেলার শ্রেষ্ট প্রাথমিক শিক্ষিকা নির্বাচিত হয়েছেন গাংনী উপজেলার গাঁড়াডোব সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা তরিফা নাজনীন।
প্রধান শিক্ষক তরিফা নাজনিনের পরিপাটি অফিস কক্ষটিতে নিয়ম মাফিক প্রধান মন্ত্রী ও বাংলাদেশের স্থপতি জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর নির্দেশনা থাকলেও প্রধান শিক্ষক তরিফা নাজনিন টাঙিয়েছেন নিজের ছবি।
বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক মিলনায়তনে তিনি বসেন না তাই বিদ্যালয়ের অন্য একটি কক্ষে সাজানো হয়েছে তার কক্ষটি।
প্রধান মন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর ছবি নেই কেন এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধান শিক্ষক তরিফা নাজনিন জানান ছবিটি আমার এক ছাত্র ঢাকা থেকে বেঁধে পাঠিয়েছেন তাই সেখানে টাঙানো হয়েছে। তবে প্রধান মন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানো নিয়ে প্রধান শিক্ষক তরিফা নাজনিন অনেকটাই বীরদর্পে বলেছেন, জেলা প্রশাসক নিজে আমার অফিস কক্ষটি দেখেছেন কিন্ত এ নিয়ে কোন কথা বলেননি।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে,গাঁড়াডোব সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তরিফা নাজনীন নিয়মিত স্কুলে উপস্থিত থাকেন না। অফিসের নানা কাজের অযুহাতে প্রায়শঃ অনুপস্থিত থাকেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সহকারী শিক্ষক জানান, তিনি সারাক্ষণ ফেস বুকে থাকেন। স্কুল করবেন কখন। আর তিনি জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক তাই ৃৃ।
বিদ্যালয়ে ক্ষুদ্র মেরামত ও উন্নয়ন কল্পে বরাদ্দকৃত ১ লাখ টাকা ,স্লিপের ৪০ হাজার টাকা, পায়খানা মেরামতের জন্য সাড়ে ১৮ হাজার টাকা, প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য ৫ হাজার ও রুটিন মেরামতের জন্য ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ পেয়ে স্কুলে আনুসঙ্গিক কাজ না করে ক্লাসে ক্লাসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেছেন। অথচ স্কুলের সামনে কাঁদা-পানিতে একাকার।
অভিযুক্ত শিক্ষিকা তরিফা নাজনীন এসব জবাবে জানান, আমি অল্পদিন হলো গাঁড়াডোব স্কুলে যোগদান করেছি। আমার অফিস ডিসি মহোদয় পরিদর্শন করেছেন। ঢাকার এক বন্ধু ছবিটা বাঁধাই করে পাঠিয়েছেন। তাই আমি অফিসে টাঙ্গিয়ে রেখেছি।
এব্যাপারে গাংনী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আকবর আলী অভিযোগ পেয়ে সাথে সাথে সহকারী শিক্ষা অফিসারকে স্কুলে পাঠিয়ে এর সত্যতা পান। তিনি সাংবাদিকদের বলেন,তরিফা নাজনীন নিজের ছবি ঝুলিয়ে অমার্জনীয় অপরাধ করেছেন।তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মতামত জানানঃ