ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  অর্থনীতি   »   পুঁজিবাজারে শীর্ষ পাঁচে ওয়ালটন

পুঁজিবাজারে শীর্ষ পাঁচে ওয়ালটন

জুন ২৭, ২০২০ - ৯:১৮ অপরাহ্ণ
ওয়ালটন

শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য বা এনএভি বিবেচনায় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে শীর্ষ পাঁচে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এমনকি তালিকাভুক্ত বহুজাতিক কোম্পানি ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো (বিএটিবিসি), বার্জার পেইন্টস, গ্ল্যাক্সোস্মিথক্লাইন, রেকিট বেনকিজার ও গ্রামীণফোনের চেয়েও ওয়ালটনের শেয়ার প্রতি এনএভি বেশি।

এছাড়া শেয়ার প্রতি মুনাফা বা ইপিএস বিবেচনায় তালিকাভুক্ত দেশীয় কোম্পানিগুলোর মধ্যে ওয়ালটন দ্বিতীয় অবস্থানে।

শুধু তাই নয়; দেশের শেয়ারবাজারের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ইপিএস (শেয়ার প্রতি মুনাফা) নিয়ে তালিকাভুক্ত হতে যাচ্ছে ওয়ালটন হাই-টেক। তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর ইপিএস বিবেচনায় শীর্ষ আটে রয়েছে ওয়ালটন। এক্ষেত্রেও বহুজাতিক কোম্পানি বার্জার পেইন্টস ও গ্রামীণফোনের চেয়েও ওয়ালটন এর ইপিএস বেশি।

তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর গত অর্থবছরের প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য মতে, লিব্রা ইনফিউশনের এনএভি’র শীর্ষে রয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি এনএভি এক হাজার ৫৯৩ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে বাটা সু’র এনএভি ৩৪৭ দশমিক ১১ টাকা, তৃতীয় লিনডে বিডি’র এনএভি ৩৩৫ দশমিক ৭০ টাকা, চতুর্থ স্থানে অ্যাপেক্স ফুটওয়্যারের এনএভি ২৪৯ দশমিক ৮৩ টাকা। এর পরেই রয়েছে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির পথে থাকা ওয়ালটন হাই-টেকের এনএভি ২৪৩ দশমিক ১৬ টাকা।

ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজের কোম্পানি সচিব পার্থ প্রতিম দাশ বলেন, যেসব কোম্পানির নিট সম্পদ মূল্য বা এনএভি বেশি থাকে, সেসব কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে ভালো ক্যাপিটাল ও ডিভিডেন্ড গেইন করার সম্ভাবনাও বেশি থাকে। সেই হিসেবে এনএভি ও ইসিএস বিবেচনায় শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে ওয়ালটন। তার প্রত্যাশা- ওয়ালটনে বিনিয়োগ করে একদিকে কাঙ্ক্ষিত ক্যাপিটাল ও ডিভিডেন্ড গেইন করতে সক্ষম হবেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সভাপতি মো. সায়েদুর রহমান বলেন, ওয়ালটনের মতো বড় প্রতিষ্ঠান পুঁজিবাজারের উন্নয়ন ও গভীরতা বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে। ওয়ালটনের তালিকাভুক্তি উদাহারণ হিসেবে অন্য প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজারে আসতে আগ্রহী করে তুলবে।

বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্যপরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সম্পদ মূল্য বিবেচনায় ওয়ালটন আর্থিকভাবে অনেক শক্তিশালী একটি কোম্পানি। একইসঙ্গে তাদের ইপিএসও খুব ভালো। পুঁজিবাজারে ওয়ালটনের মতো আরও মানসম্পন্ন কোম্পানি তালিকাভুক্ত হলে বিনিয়োগকারীরা আস্থা ফিরে পাবে।

আপনার মতামত জানানঃ