ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আইন-আদালত   »   পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা চায় রাষ্ট্রপক্ষ

পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন সাজা চায় রাষ্ট্রপক্ষ

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ - ৪:৪০ অপরাহ্ণ

যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী পাপিয়া ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলার রায় দেয়া হবে ১২ অক্টোবর। রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে অস্ত্র মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে এ দিন ধার্য করা হয়। এদিন আদালতে পাপিয়া ও তার স্বামীর সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন চান রাষ্ট্রপক্ষ।

এদিকে দেশে করোনা চিকিৎসার নামে প্রতারণা কেলেঙ্কারির মূলহোতা রিজেন্টের সাহেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলায় রায় দেয়া হবে আগামীকাল (সোমবার)।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর শুদ্ধি অভিযানে গ্রেফতার পাপিয়ার অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠে। যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত এ নেত্রীর বিরুদ্ধে বিচারিক আদালতে চলছে দুর্নীতি, মাদক, জাল টাকা ও অস্ত্র মামলা। রোববার অস্ত্র মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানির জন্য মহানগর দায়রা জজ আদালতে তোলা হয় পাপিয়া ও তার স্বামীকে।

কাঠগড়ায় ২ আসামির উপস্থিতিতে আদালত ১২ অক্টোবর অস্ত্র মামলায় রায় ঘোষণার দিন ধার্য করেন। এদিন পাপিয়া ও তার স্বামীর সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন চান রাষ্ট্রপক্ষ।

তারা বলেন, আমরা আশাবাদী এ মামলার সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন হবে তার। তার সব অপরাধ আমরা প্রমাণ করতে পেরেছি। এ মামলায় ১২ জন সাক্ষীর সবাই পাপিয়া ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। যদিও পাপিয়ার আইনজীবীর দাবি খালাস পাবেন তার মক্কেল।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাল টাকা, দেশি-বিদেশি মুদ্রা, ৭টি পাসপোর্টসহ পাপিয়া দম্পতি গ্রেপ্তারের পর, পাপিয়ার ইন্দিরা রোডের ফ্ল্যাটে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন ও ২০টি গুলি উদ্ধার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় অস্ত্র আইনে পাপিয়া ও তার স্বামী সুমনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

এদিকে দেশে করোনা চিকিৎসার নামে প্রতারণা কেলেঙ্কারির মূলহোতা রিজেন্টের সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলায় রায় সোমবার ঘোষণা করবেন বিচারিক আদালত।

Tags:

আপনার মতামত জানানঃ