ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিকপ্রধান সংবাদ   »   পাকিস্তানের পাশে চীন

পাকিস্তানের পাশে চীন

October 17, 2016 - 1:39 PM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রোববার পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদের সূতিকাগার বলেছিলেন। এর একদিন পরই ইসলামাবাদের পাশে দাঁড়িয়েছে ঘনিষ্ঠ মিত্র চীন।

সোমবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পাকিস্তানের ‘মহান আত্মত্যাগকে’ সবার স্বীকৃতি দেওয়া উচিৎ। চীন সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে যে কোনো দেশের নাম জুড়ে দেওয়ার বিরোধিতা করে।

রোববার ভারতের গোয়ায় ব্রিকস সম্মেলনে মোদি বলেছেন, ‘আমাদের অঞ্চলে শান্তি, নিরাপত্তা ও উন্নয়নের জন্য সন্ত্রাসবাদ একটি বড় হুমকি। দুঃখজনকভাবে সন্ত্রাসবাদের সূতিকাগার এমন একটি দেশ, যার অবস্থান ভারতের পাশেই। ওই দেশ থেকেই সারা বিশ্বে সন্ত্রাস ছড়ানো হচ্ছে।’

বেইজিংয়ে সংবাদ সম্মেলনে মোদির মন্তব্যের বিষয়ে চীনের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রী হুয়া চুনইং বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে চীন দৃঢ় অবস্থানে রয়েছে। একইভাবে আমরা কোনো নির্দিষ্ট দেশ কিংবা ধর্মকে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট করার বিরোধী ।’

তিনি বলেন, ‘ আমরা যে কোনো ধরণের সন্ত্রাসবাদের বিরোধী এবং আমরা বিশ্বাস করি প্রতিটি দেশের শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে আন্তর্জাতিক সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। আমরা কোনো নির্দিষ্ট সম্প্রদায় অথবা ধর্মকে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট করারও বিরোধী। এটা আমাদের সুর্দীর্ঘ সময়ের অবস্থান। চীন ও পাকিস্তান সবসময়ের বন্ধু।’

ভারত ও পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদের শিকার উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইসলামাবাদ অনেক বড় আত্মত্যাগ করেছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এর স্বীকৃতি দেয়া উচিৎ।’

আপনার মতামত জানানঃ