ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ধর্ম   »   পশু-পাখি অন্যায়ভাবে হত্যা করবেন না

পশু-পাখি অন্যায়ভাবে হত্যা করবেন না

অক্টোবর ১৪, ২০২০ - ১:২২ অপরাহ্ণ

আমরা আনেকেই পশু-পাখি অন্যায়ভাবে হত্যা করে থাকি। কিন্তু আপনি জানেন কি এটা একদম ঠিক নয়। মহান স্রষ্টা আল্লাহ তাআলা মানুষ সৃষ্টির পাশাপাশি মানবজাতির প্রয়োজন পূরণের যাবতীয় ব্যবস্থা রেখেছেন। এবং তাদের কল্যাণে অসংখ্য জীবজন্তু সৃষ্টি করেছেন। মানুষের ন্যায় তাদেরও রয়েছে এ ভূপৃষ্ঠে সরব বসবাস। তারাও আল্লাহ তাআলার সুবিশাল সৃষ্টি।

এক আয়াতে আল্লাহ তাআলা প্রাণী সম্পর্কে বলেন, ‘ভূপৃষ্ঠে বিচরণশীল প্রত্যেকটি জীব এবং (বায়ুমণ্ডলে) নিজ ডানার সাহায্যে উড়ন্ত প্রত্যেকটি পাখি তোমাদের মতোই একেকটি জাতি।’ (সুরা : আনআম, আয়াত : ৩৮)।

পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তোমরা আহার করো ও তোমাদের গবাদি পশু চরাও। অবশ্যই এতে বহু নিদর্শন আছে বিবেকসম্পন্নদের জন্য। ’ (সুরা : ত্বহা, আয়াত : ৫৪) অর্থাৎ বিভিন্ন প্রকার উৎপন্ন ফল-ফসলের মধ্যে কিছু মানুষের পানাহার ও বিলাস-ভোগের জন্য, আর কিছু জীবজন্তুদের জন্য।

কিন্তু সমাজে এমন কিছু নিষ্ঠুর মানুষ আছে, যারা নির্বোধ প্রাণীদের প্রতি চরম অবজ্ঞা-অবহেলা প্রদর্শন করে। কারণে-অকারণে তাদের কষ্ট দেওয়া কিংবা হত্যা করাকে খুবই সাধারণ বিষয় মনে করে।

ইসলামে ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্র প্রাণীকে অযথা কষ্ট দেওয়া, আটকে রাখা এবং নিরীহভাবে হত্যা করাকে কঠোরভাবে নিষেধ করা হয়েছে।

এক হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) অন্যায়ভাবে প্রাণী হত্যাকারীর শাস্তির কথা বর্ণনা করতে গিয়ে বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি চড়ুই বা তার চাইতে ছোট কোনো প্রাণীকে অযথা হত্যা করে, তাকে আল্লাহ তাআলা কিয়ামতের দিন সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করবেন। তখন জিজ্ঞাসা করা হলো, হে আল্লাহর রাসুল! তার অধিকার কী? তিনি বলেন, তার অধিকার হলো তাকে যথানিয়মে জবেহ করে ভক্ষণ করা এবং তার মাথা কেটে নিক্ষেপ না করা। ’ (নাসায়ি, হাদিস : ৪৩৪৯) এর বিপরীতে যারা প্রাণীদের যথাযথ যত্ন নেবে এবং সেবা করবে, তাদের জন্য রয়েছে গুনাহ মাফের ঘোষণা।

আপনার মতামত জানানঃ