ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  সারা বাংলা   »   পদ্মায় বিলীন শিমুলিয়ার চার নম্বর ফেরিঘাট

ভিআইপি ফেরিঘাট

পদ্মায় বিলীন শিমুলিয়ার চার নম্বর ফেরিঘাট

আগস্ট ৬, ২০২০ - ১২:২৬ অপরাহ্ণ
শিমুলিয়ার চার নম্বর ফেরিঘাট

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাটের চার নম্বর ফেরিঘাট পদ্মায় বিলীন হয়ে গেছে। ঘাটটি ভিআইপি ফেরিঘাট নামে পরিচিত ।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) মধ্যরাত ৩টা থেকে ভাঙন শুরু হয়। সকালে ভাঙন ২ নম্বর ঘাটের দিকে ধাবিত হয়। রো রো ফেরির ২ নম্বর ঘাটও এখন বন্ধ রয়েছে। সীমিত আকারে ফেরি চলছে শুধু একনম্বর ঘাট দিয়ে। এ ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা।

এর আগে পদ্মার তীব্র ভাঙনে গত ২৮ জুলাই শিমুলিয়ার ৩ নম্বর রো রো ফেরিঘাট বিলীন হয়ে যায়। ৯ দিনের মাথায় দ্বিতীয় দফা ভাঙনের কবলে পড়েছে। মোট চারটি ফেরিঘাটের মধ্যে এখন বাকি থাকলো একটি। পার্কিং ইয়ার্ডও ছোট হয়ে আসছে। ঘাটের দোকান সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। এখানে ঘাট রক্ষায় নানা প্রচেষ্টা চলছে। জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিএয়ের চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক বলেন, ভাঙন তো আমরা এখন আটকাতে পারবো না। যতটুকু পারছি জিও ব্যাগ ফেলে তা রোধ করার চেষ্টা করছি। তবে সেটা খুব কঠিন। আমাদের ১ নং ও ২নং ফেরিঘাট এখনও আছে। ১নং ফেরি ঘাট দিয়ে এখন ফেরি চলাচল করছে। যাতে ফেরি চলাচল পুরোপুরি বন্ধ না হয়ে যায় সে চেষ্টা চালাচ্ছি আমরা। আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। পরে আমরা একটি স্থায়ী ব্যবস্থা নেয়ার চেষ্টা করবো।

তিনি আরো বলেন, বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে ঘাট স্থানান্তর করা যায় কিনা সেটা নিয়ে চিন্তা করা হচ্ছে। আমাদের ইঞ্জিনিয়াররা এখানে আছেন। আর না হলে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাট দিয়েই চলাচল করতে হবে। বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে এটাই আপাতত করা যায়।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু যতদিন না হয় ঘাট তো আমাদের চালু রাখতেই হবে। বিকল্প ব্যবস্থা আমাদের বের করতে হবে। সুবিধাজনক জায়গা বা এর আশপাশে রাস্তা ঠিক করে আমরা ফেরি সার্ভিস চালু রাখার চেষ্টা করবো।

সাড়ে ৯ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৫টায় ৮ ফেরি দিয়ে সীমিত আকারে ফেরি চলাচল শুরু হয়। কিন্তু ভাঙন ২ নম্বর ঘাটের দিকে ধাবিত হওয়ায় রো রো ফেরি ৩টি বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে ভোগান্তি বাড়ছে।

এছাড়া বৈরী আবহাওয়ার কারণ ৮৭টি লঞ্চ বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে সাড়ে ৪শ স্পিডবোট চলছে বলেও জানান তিনি।

Tags:

আপনার মতামত জানানঃ