ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   নিহত জেএমবির অর্থদাতার বাড়ি সাতক্ষীরায়

নিহত জেএমবির অর্থদাতার বাড়ি সাতক্ষীরায়

October 9, 2016 - 8:42 AM

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আশুলিয়ায় শনিবার রাতের অভিযানে নিহত জেএমবির অর্থদাতা জঙ্গি আব্দুর রহমান ওরফে আয়নুলের বাড়ি সাতক্ষীরায় বলে জানতে পেরেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কোচপুর গ্রামের আহসান উল্লার ছেলে তিনি। তবে সাতক্ষীরা ছেড়ে সাভারের বিভিন্ন স্থানে গত তিন থেকে চার বছর যাবত সে বসবাস করছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

আয়নুল তার সাংগঠনিক নাম হলেও গ্রামের মানুষ তাকে রকিবুল নামেই চেনে। পাসপোর্ট ও ড্রাইভিং লাইসেন্স অনুযায়ী তার নাম আব্দুর রহমান।

এ ছাড়া নাজমুল হোসেন, শাখাওয়াত হোসেন, এনামুল হক ইত্যাদি ছদ্ম নামও সে ব্যবহার করতো বলে জানতে পেরেছে র‌্যাব।

সাভার র‌্যাব-৪ নবীনগর ক্যাম্পের কমান্ডার এএসপি উনু মং এ প্রতিবেদককে জানান, নিহত আব্দুর রহমান মূলত সাতক্ষীরা সদর এলাকার শিবির নেতা ছিলেন। সেখান থেকেই চলে এসে নব্য জেএমবির বিভিন্ন মিশনে অর্থ সরবরাহ শুরু করেন। বর্তমানে পুলিশের বিশেষ শাখার সদস্যরা সাতক্ষীরায় আব্দুর রহমানে বিষয়ে আরো তথ্য সংগ্রহের কাজ করছে। তার সহযোগীদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

র‌্যাবের ভাষ্যমতে, নিহত জঙ্গি আব্দুর রহমান নব্য জেএমবির অর্থদাতা। তবে আব্দুর রহমান কোন উপায়ে অর্থ উপার্জন করতো-সেটি এখনও জানতে পারেনি র‌্যাব।

এএসপি উনু মং বলেন, র‌্যাবের হেফাজতে থাকা আব্দুর রহমানের স্ত্রী তার স্বামী সম্পর্কে কোনো তথ্য দিতে রাজি হচ্ছে না।

তিনি বলেন, ‘আব্দুর রহমানের স্ত্রীও একটা শয়তানের হাড্ডি, কিছুতেই কিছু বলছে না, এজন্য আব্দুর রহমানের অর্থের উৎস্য আমরা জানতে পারছি না, তবে এসব বিষয়ে জানতে সাতক্ষীরায় আমাদের সদস্যরা কাজ করছে।’

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানায় রোববার বিকেলে একটি মামলা দায়ের করা হবে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।র‌্যাবের হেফাজতে থাকা আব্দুর রহমানের স্ত্রীকেও এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর কথা জানিয়েছে র‌্যাব। তথ্য না দেওয়ায় তাকে রিমান্ডে নেওয়ারও পরিকল্পনা রয়েছে র‌্যাবের।

গতকাল আব্দুর রহমানকে গ্রেপ্তারে আশুলিয়ার গাজীরচট বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি পাঁচ তলা বাড়িতে অভিযান চালায় র‌্যাব। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়িটির পাঁচ তলা থেকে লাফিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন আব্দুর রহমান। এতে সে গুরুতর আহত হলে তাকে হাসপাতালের নেওয়ার পর রাতে মারা যায়।

অভিযান শেষে র‌্যাব দাবি করেন, সাম্প্রতিক সময়ে নব্য জেএমবি যে সব নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছে, তাতে মূল অর্থ সরবরাহকারী ছিলেন আব্দুর রহমান।

আপনার মতামত জানানঃ