ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ধর্মসারা বাংলা   »   দেশের বিভিন্ন স্থানে পালিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

দেশের বিভিন্ন স্থানে পালিত হচ্ছে ঈদুল আজহা

জুলাই ৩১, ২০২০ - ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ

সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে দেশের বিভিন্ন স্থানে পবিত্র ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। মৌলভীবাজার সার্কিট হাউস এলাকায় শুক্রবার (৩১ জুলাই) সকাল সাড়ে ৬টায় অনুষ্ঠিত ঈদ জামাতের ঈমামতি করেন আলহাজ্ব আব্দুল মাওফিক চৌধুরী। এতে অর্ধ শতাধিক মুসল্লি অংশ নেন।

নামাজ শেষে দেশ ও জাতীর কল্যাণে মোনাজাত এবং কোরবানি দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ চৌদ্দ বছর ধরে মৌলভীবাজার সার্কিট হাউস এলাকায় সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে ঈম জামাত অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

দিনাজপুরের জেলা সদর, চিরিরবন্দর বিরল, কাহারোল, বিরামপুর এবং খানসামা উপজেলা এলকায় পৃথক জামাতে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেছেন প্রায় দুই হাজারের অধিক মানুষ। পরে পশু কোরবানি দেন তারা।

সকাল সাড়ে ৭টায় দিনাজপুরের শহরের চুরিপট্টি এলাকায় একটি (পার্টি সেন্টার) কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত নামাজে অংশ নেন প্রায় দুইশত পরিবার। এতে ইমামতি করেন ঢাকার মাদ্রাসাতুল হাদিসের ছাত্র সাইফুল ইসলাম।

এছাড়াও প্রায় একই সময়ে চিরিরবন্দরের সাইতাড়া রাবারড্যাম, বিরলের বালন্দর, কাহারোলের জয়নন্দ বিরামপুরের দুই স্থান আয়রা মাদ্রাসা মাঠ ও খয়েরবাড়ী মির্জাপুর দাখিল মাঠ, খানসামার পাকেরহাটসহ বিভিন্ন স্থানে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন তারা।

চাঁদপুরের ৫০টি গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আজহা। সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে জেলার ৪ উপজেলার ৫০টি গ্রামের কয়েক লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমান পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, ফরিদগঞ্জ, শাহরাস্তি ও মতলব সহ উত্তরের এই ৫০টি গ্রামের মুসলিম সম্প্রদায়ের লক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মুসলিম ধর্মীয় এই উৎসবে যোগ দেন। সকালে নিজ নিজ গ্রামে ঈদের নামাজ আদায় করেন তারা।

জেলার হাজীগঞ্জের সাদ্রা সিনিয়র মাদরাসা, বলাখাল, সমেশপুর, ফরিদগঞ্জের বদরপুর, টোরামুন্সিরহাট, উভারামপুর, মতলব উত্তর ও শাহরাস্তি উপজেলার ৫০টি গ্রামে ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের সাদ্রা দরবার শরীফের পীর মাওলানা ইসহাক (রহ.) ১৯৩২ সালে চন্দ্র মাস হিসেব করে সৌদি আরব এবং মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে এই অঞ্চলে দুটি ঈদ এবং রোজা প্রচলন করেন। তারপর থেকে প্রয়াত এই কামেল ব্যক্তির অনুসারীরা সেই ধারা অব্যাহত রেখে চলেছেন।

আপনার মতামত জানানঃ