ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইমজাতীয়   »   দুই গ্রুপের মারামারির মীমাংসা গিয়ে কিশোর নিহত

দুই গ্রুপের মারামারির মীমাংসা গিয়ে কিশোর নিহত

নভেম্বর ১৪, ২০২০ - ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে দুই কিশোর গ্রুপের মারামারির মীমাংসা করতে এসে অপু নামের এক কিশোর নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো দু’জন। শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ জনকে থানায় নেয়া হয়েছে।

একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন নিহত অপুর মা পারুল বেগম। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে ছেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে দিশেহারা তিনি।

আপুর মা বলেন, ‘আমার ছেলেটা ছিল আমার দুইটা কিডনি। আমার সন্তানের সাথে আমার লাশটা দাফন করে দেন। আর নয়তো আমার সন্তানকে আমার বুকে ফিরিয়ে দেন। আমি বেঁচে থেকে আমার কোন লাভ নেই।শুক্রবার বিকালে বাসা থেকে বের হয় অপু। সন্ধ্যায় ঝাউচর সেভেনে’র মাঠে স্থানীয় কিশোরদের সাথে তার ভাইয়ের সংর্ঘের খবর পান তিনি।ফোন আসার সাথে সাথে ঘর থেকে বের হয়ে গেছে। বিকালে শুনি জোরে মাথায় বাড়ি দিয়েছে তাই মাথা ফেটে গেছে আর কান দিয়ে রক্ত পড়ছে। আমাদের তাড়াতাড়ি ঢাকা মেডিকেল এ আসতে বলছে। আমরা এসে দেখি সে আর নেই।’

অপুর মামা বলেন, ‘পিচ্চি ছেলেকে মারছে ৩/৪ জন লোক। ওটা ছাড়িয়ে দিতে গিয়ে ওদের সাথে তর্ক বিতর্ক হয়। তারপর একটা গ্রুপ ওরা আমার ভাগিনার উপর হামলা করে। স্ট্যাম্প দিয়ে বাড়ি মারে। তো আমার ভাগিনা ওখানেই স্পট ডেড হয়ে যায়।’

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অপুর তিন বন্ধুকে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। এসময় তারা জানায়, এলাকার ছোট ভাইকে মারধর করছিল অন্য গ্রুপের কয়েকজন। এ সময় খবর পেয়ে অপুসহ তারা ঘটনা মীমাংসা করতে গেলে তাদের উপর লাঠিসোটা দিয়ে হামলা চালানো হয়। এতে মাথায় গুরুতর আঘাত পায় অপু।

অপুর বন্ধুরা বলেন, ‘কি একটা সমস্যা হয়েছে তো আমরা গেছি সমাধান করতে। একবার সমাধান করছি, আমরা এসে পড়ছি পরে ওরা আবার মারছে। একজনের নাম সানজু আরেকজনের নাম ইব্রাহিম।’

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্প এর ইনিচার্জ বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘অপু, শিহাব, শামীম এরা কি একটা মীমাংসা করার জন্য ওখানে গিয়েছিল। অপুকে কাঠের টুকরা দিয়ে মাথায় আঘাত করে। ঢাকা মেডিকেল এ নিয়ে আসলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করে। কি কারণে কি হয়েছে সেটা জানার জন্য কামরাঙ্গীচর থানার ওসিকে জানানো হচ্ছে। তারা ব্যবস্থা নিচ্ছে।’

আপনার মতামত জানানঃ