ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   তাসকিন জাদু

তাসকিন জাদু

September 26, 2016 - 6:27 AM

ক্রীড়া প্রতিবেদক: বোলিং অ্যাকশনের বৈধতা পাওয়ার পর প্রথম ম্যাচ; স্বাভাবিকভাবেই উদ্বিগ্ন থাকার কথা। কিন্তু তাসকিন আহমেদ সেখানে একেবারেই ভিন্ন। চোখে-মুখে আত্মবিশ্বাস নিয়ে রোববার মিরপুরে আফগানিস্তানের মুখোমুখি তাসকিন।

মাশরাফি দ্বিতীয় ওভারেই তার হাতে বল তুলে দেন। গুরুর মতো তারও শুরুটা ওয়াইড দিয়ে। কিন্তু বৈধ প্রথম বলেই উইকেটের সম্ভাবনা। কিন্তু সম্ভাবনায় পানি ঢেলে দেন ইমরুল কায়েস। আফগান ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ প্রথম স্লিপে ক্যাচ তুলে দেন। কিন্তু ইমরুল বল তালুবন্দি করতে না পারায় তাসকিন শুরুতেই আনন্দ থেকে বঞ্চিত হন। শুরুর আনন্দ তাসকিন না পেলেও শেষটা পেয়েছেন। মাঠ চক্কর দিয়ে, শূন্যে লাফিয়ে তাসকিন বুঝিয়েছেন কেন তিনি সেরা।

প্রথম স্পেলে তাসকিনের বোলিং ফিগার ৩-০-২৮-০। প্রথম ওভারের শুরুতে বল হাতে প্রথম স্পেলে নজরকাড়া কিছু করতে পারেননি ডানহাতি পেসার। দ্বিতীয় স্পেলে ২৭ ও ২৯তম ওভারে ফিরে আসেন তাসকিন। দুই ওভারে খরচ করেন ১২ রান। তখনো কোনো সাফল্য পাননি। তৃতীয় স্পেলে ৪৩তম ওভার করে আবার মাশরাফি বল তুলে দেন। কিন্তু ওই ওভারে ৯ রান দেন তাসকিন। সাফল্য তখনো তার হাতের মুঠোয় আসেনি।

কিন্তু চতুর্থ ওভারে তাসকিন ফিরে এসে ম্যাচের মোড় পাল্টে দেওয়ার পাশাপাশি নিজের ক্ষুধা মিটিয়েছেন। তার করা ১২ বলে আফগানরা মাত্র ১১ রান নিয়েছে। কিন্তু উইকেট হারায় ৪টি। শুরুটা আফগানিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক নবীকে দিয়ে। স্লোয়ার বলে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে লং অফে ক্যাচ দেন নবী (৩০)। এক বল পরে আফগানদের বর্তমান অধিনায়ক আজগর স্টানিকজাই (১০) ইয়র্কার লেন্থের বল উঠিয়ে মারতে গিয়ে লং অনে ক্যাচ দেন।

শেষ ওভারে আফগানদের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৩ রান। আন্তর্জাতিক দলে ফেরা তাসকিন তখনো বিচলিত হননি। বরং এক লাইনে বল করে গেছেন। ওভারের দ্বিতীয় ও ষষ্ঠ বলে পেয়েছেন উইকেটের স্বাদ। বাকি চার বলে রান দিয়েছেন মাত্র ৫। সব মিলিয়ে দিন শেষে তার বোলিং ফিগার ৮-০-৫৯-৪। ইশ! ইমরুল শাহজাদের ক্যাচটি লুফে নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো পাঁচ উইকেটের স্বাদ পেতেন ২১ বছর বয়সি এ পেসার। ম্যাচসেরার পুরস্কার না পেলেও তাসকিন জিতেছেন সবার মন। ফিরে এসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জানান দিয়েছেন তিনি বিশ্বের অন্যতম সেরা পেসার।

তার বোলিংয়ের প্রশংসা করেছেন আফগানিস্তানের অধিনায়ক। পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে স্টানিকজাই বলেন, ‘তাসকিন শেষ দিকে দারুণ বোলিং করেছে। বাংলাদেশকে জয় পেতে ও দারুণ বল করেছে।’

মাশরাফি বিন মুর্তজা তাসকিনকে নিয়ে বলেন, ‘তাসকিন মাত্রই অ্যাকশনের বৈধতা পেয়েছে। সাকিবের সঙ্গে তাসকিন দারুণ বল করেছে।’

এ ফল তাসকিনের থেকে প্রত্যাশিত। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ঘরোয়া ক্রিকেটে ২৬ উইকেট নিয়ে আবাহনীকে শিরোপা জেতাতে বড় ভূমিকা রাখেন তাসকিন আহমেদ।

আপনার মতামত জানানঃ