ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   ট্রাম্প-হিলারির সমর্থন-ব্যবধান কমেছে

ট্রাম্প-হিলারির সমর্থন-ব্যবধান কমেছে

October 22, 2016 - 10:28 AM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দুই প্রার্থী হিলারি ক্লিনটন ও ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে সমর্থন-ব্যবধান কমেছে।

‘নির্বাচনে কারচুপি হতে পারে’- এমন আশঙ্কার পক্ষে ট্রাম্পের জোরালো প্রচারের পর এ ব্যবধান কমতে শুরু করে।

রয়টার্স/ইপসোস পরিচালিত জরিপে এ তথ্য উঠেছে। শুক্রবার প্রকাশিত জরিপের ফলাফলে বলা হয়েছে, নির্দিষ্ট এক সপ্তাহে হিলারি ও ট্রাম্পের মধ্যকার ভোটার সমর্থনের ব্যবধান অর্ধেকে নেমে এসেছে।

ভোট কারচুপির অভিযোগ নিয়ে শুক্রবারও শক্তিশালী বক্তব্য রাখেন ট্রাম্প। এ দিন পেনসিলভানিয়ায় এক সমাবেশে নির্বাচন ব্যবস্থা সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, ‘আপনারা মনে রাখবেন, এটি একটি জালিয়াত ব্যবস্থা। আপনাদের বেরিয়ে আসতে হবে এবং ভোট দিতে হবে, আপনাদের দৃষ্টি রাখতে হবে। কারণ এ ব্যবস্থা পুরোটাই জালিয়াতপূর্ণ।’

১৪-২০ অক্টোবর পর্যন্ত মার্কিন ভোটারদের ওপর জরিপ পরিচালনা করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও জরিপ সংস্থা ইপসোস। এতে উঠে এসেছে, ট্রাম্পের চেয়ে হিলারি ৪০-৪৪ ব্যবধানে এগিয়ে আছেন। ৭-১৩ অক্টোবর পরিচালিত এ দুই সংস্থার জরিপে দেখা যায়, ৪৪ শতাংশ ভোটারের সমর্থন নিয়ে এগিয়ে ছিলেন হিলারি, যেখানে ট্রাম্পের পক্ষে সমর্থন ছিল ৩৭ শতাংশ ভোটারের।

এদিকে, রিয়েল ক্লিয়ার পলিটিক্স নামের একটি সংস্থার পরিচালিত জরিপের গড় ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, ট্রাম্পের চেয়ে হিলারি ৬ দশমিক ২ শতাংশ ভোটারের সমর্থন নিয়ে এগিয়ে গেছেন। যেখানে হিলারির পক্ষে রয়েছে ৪৮ দশমিক ১ শতাংশ এবং ট্রাম্পের পক্ষে রয়েছে ৪১ দশমিক ৯ শতাংশ ভোটারের সমর্থন।

শনিবার পেনসিলভানিয়ার ঐতিহাসিক গেটিসবার্গে ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে ট্রাম্পের। গেটিসবার্গের যে স্থানে রিপাবলিকান নেতা আব্রাহাম লিংকন ভাষণ দিয়েছিলেন, সেখানেই ভাষণ দেবেন ট্রাম্প।

১৯ অক্টোবর হিলারি ও ট্রাম্পের মধ্যকার তৃতীয় ও শেষ বিতর্কেও জয়ী হন হিলারি। বিতর্কে হার-জিত ভোটারের ওপর খুব বেশি প্রভাব রাখে না। তবে ট্রাম্প তার প্রচারকৌশল কিছুটা পাল্টে নির্বাচনে কারচুপির ওপর বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এর কিছু ফল হয়তো তিনি পাবেন। কিন্তু হিলারির অভিযোগ, যুক্তরাষ্ট্রের মহান গণতন্ত্রকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছেন ট্রাম্প।

উল্লেখ্য, ৮ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। এ অবস্থায় দুই প্রার্থী বিভিন্ন রাজ্যে শেষ সময়ের প্রচারে ব্যস্ত আছেন।

আপনার মতামত জানানঃ