ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  জাতীয়   »   ট্যাম্পাকোতে রাংতা কাগজ তৈরি ও প্যাকেজিং হতো

ট্যাম্পাকোতে রাংতা কাগজ তৈরি ও প্যাকেজিং হতো

September 10, 2016 - 12:47 PM

টঙ্গী : গাজীপুরের টঙ্গী বিসিক শিল্পনগরীতে আগুনে ভস্মীভূত ট্যাম্পাকো কারখানা সরকার স্বীকৃত একমাত্র রাংতা (সিগারেটের প্যাকেটের ভেতরের সোনালী কাগজ) প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান।

পাশাপাশি ওই কারখানায় ‘প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং’-এর কাজ, চিপসের প্যাকেট তৈরি করা হতো।

বিসিক এলাকার মেসার্স সততা এন্টারপ্রাইজের মালিক মোহাম্মদ নান্নু রাইজিংবিডিকে বলেন, ১০ বছরের বেশি সময় আগে প্রতিষ্ঠিত এ কারখানা রাংতা কাগজ তৈরির জন্য বিখ্যাত। সেখানে ব্রিটিশ-আমেরিকান টোবাকোর বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেটের কাগজ প্রিন্ট হতো। তবে অন্য কোনো কেম্পানির কাগজ প্রিন্ট হতো কি না, সে বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

তিনি বলেন, শুধু সিগারেটের প্যাকেটের ভেতরের কাগজ তৈরি নয়, এখানে প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিংয়ের কাজ হতো।

ট্যাম্পাকোর বিপরীত পাশের প্রতিষ্ঠান মেনোকা মোটরস লিমিটেডের নিরাপত্তাকর্মী ইউসুফ আলী বলেন, এটা অনেক বড় কারখানা। এখানে সিগারেটের প্যাকেটের একটা অংশের কাজ হতো বলে জানতাম।

একই প্রতিষ্ঠানের আইটি বিভাগের কর্মকর্তা রিয়াজ আহমেদ খান রাইজিংবিডিকে বলেন, এই কারখানায় চিপসের প্যাকেট, সিগারেটের ফিল্টার ও বিভিন্ন ধরনের প্লাস্টিকের কাভার তৈরি করা হতো।

তিনি বলেন, বয়লার বিস্ফোরণের কারণে আশপাশের অন্যান্য ভবনের মতো মেনোকা মোটরসের জানালার কাঁচ, সীমানা প্রাচীর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অফিসের ভেতরের ফলস সিলিংও কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর পাশাপাশি রাজ্জাক গার্মেন্টস কারখানাতেও ক্ষতি হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ