ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  জাতীয়   »   ট্যানারি শ্রমিকরা রোববার আট ঘণ্টা কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন

ট্যানারি শ্রমিকরা রোববার আট ঘণ্টা কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন

September 3, 2016 - 2:49 PM

নিজস্ব প্রতিবেদক : ট্যানারি শ্রমিকরা রোববার আট ঘণ্টা কর্মবিরতি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন। দাবি আদায় না হলে কোরবানির ঈদের পর লাগাতার আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তারা।

রাজধানীর হাজারীবাগে ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন কার্যালয়ের সামনে শনিবার এক সমাবেশে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, ‘ট্যানারি মালিকেরা বারবার ওয়াদা করেও তা পুরণে টালবাহানা করছেন। তাই দাবি আদায়ে ৪ সেপ্টেম্বর সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত প্রতিটি ট্যানারিতে কর্মবিরতি ঘোষণা করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের প্রাণের দাবি ছিল ট্যানারি শিল্পের জন্য একটি স্বাস্থ্যসম্মত ও পরিচ্ছন্ন পরিবেশ। সেটা আমরা পেতে যাচ্ছি। সেজন্য আমি সবার প্রথমে ধন্যবাদ জানাই বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে।’

এই নেতা বলেন, ‘আমরা চামড়া শিল্পের ক্ষতি করে কোন আন্দোলন চাই না। এরপরেও যদি মালিকপক্ষ আমাদের দাবি মেনে না নেয় তবে আমরা কোরবানির ঈদের পরে আবার লাগাতার আন্দোলন শুরু করবো। আমি বাংলাদেশ সরকার এবং মালিকদের অনুরোধ করবো শিল্পের স্বার্থে, মানবতার স্বার্থে সর্বোপরি দেশের স্বার্থে শ্রমিকদের ন্যায্য দাবিগুলো মেনে নিন।’

ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক মোঃ আবদুল মালেক বলেন, ‘যে শ্রমিকের রক্তে তিল তিল করে ট্যানারি শিল্প গড়ে উঠেছে, আজ সেই শ্রমিকদেরই কাঙ্খিত শিল্প স্থানান্তরের সময় তাদেরকেই ছুঁড়ে ফেলে দেয়া হচ্ছে।’

শ্রমিক নেতৃবৃন্দ বলেন, শ্রমিকদের প্রত্যয়নপত্র নিশ্চিত করা হোক। দাবি মেনে নিয়ে ট্যানারি শ্রমিকদের চাকরির নিরাপত্তা, ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং পূনর্বাসন নিশ্চিত করুন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

সমাবেশের পর বিক্ষোভ মিছিল বের করেন ট্যানারি শ্রমিকরা। ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন এ মিছিল ও সমাবেশের আয়োজন করে। সকাল ১১টার আগেই শ্রমিকরা তাদের নিজস্ব ইউনিটের ব্যানার নিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে দিতে ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে থাকেন।

সেখান সামবেশের পর মিছিল শুরু হয়। হাজারীবাগ বাজার অতিক্রম করে ঝিগাতলা ট্যানারির মোড় হয়ে ঢাকা ট্যানারি মোড়ে গিয়ে মিছিল শেষ হয়।

আপনার মতামত জানানঃ