ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   জলঢাকায় কালোবাজারে বিক্রি হওয়া হতদরিদ্রদের ভিজিএফের ৭১ বস্তা চাল জব্দ!!

জলঢাকায় কালোবাজারে বিক্রি হওয়া হতদরিদ্রদের ভিজিএফের ৭১ বস্তা চাল জব্দ!!

September 10, 2016 - 8:17 AM

মহিনুল ইসলাম সুজন,জেলা প্রতিনিধি নীলফামারীঃঃ– নীলফামারীর জলঢাকায় পবিত্র ঈদুল আযহার উপলক্ষে হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরনের ভিজিএফের ৭১  বস্তা চাল কালোবাজারে বিক্রির হবার পর জব্দ করেছে জলঢাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহঃ রাশেদুল হক প্রধান। পুলিশ প্রশাসন ও স্থানীয় জনগণকে সাথে নিয়ে এসব চাল উদ্ধার করেন তিনি।শুক্রবার দুপুরে উপজেলার গোলনা ইউনিয়ন পরিষদের পাশ্ববর্তী নবাবগঞ্জ বাজারে অবস্থিত সফিয়ার, জাহাঙ্গীর ও রবিয়াল এবং কালামের গোডাউনে স্তপ করে রাখা একাধিক বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। পরে ইউনিয়ন পরিষদ গোডাউনে চালগুলো রেখে সীলগালা করা হয়। অপরদিকে ৭ বস্তা ভিজিএফ এর চাল কেনার অপরাধে ন্যালভেলু নামে এক খুচরা ব্যবসায়ীকে ২’শ টাকা জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।
তবে এলাকাবাসী অভিযোগ, জব্দকৃত ৭১ বস্তা চাল বাদেও একটি বাড়ি ও আরো দুইটি গুদামে ৩০০ বস্তা চাল মজুদ থাকলেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেই চাল জব্দ না করে অভিযান স্থগিত করেন, যা কিনা রহস্যজনক।%e0%a6%9c%e0%a6%b2%e0%a6%a2%e0%a6%be%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a7%9f-%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a7%8b%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b0
জানা যায়, ঈদ উপলক্ষে ওই ইউনিয়নে ছয় হাজার ৮৫২ কাডের বিপরিতে ৫০ কেজি ওজনের চালের বস্তা দেয়া হয় এক হাজার ৩৭০ দশমিক ২০ কেজি। গত তিনদিন আগে এই চাল জলঢাকা উপজেলা খাদ্য গুদাম হতে উত্তোলন করে গোলনা ইউনিয়ন পরিষদের গুদামে রাখা হয় । গতকাল বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ও আজ শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) এই চাল বিতরনে অনেক অসহায় কাডধারী চাল না পেয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন।
জলঢাকার গোলনা  ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল আলম কবির ওরপে পান কবিরের বিরুদ্ধে এই চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ উঠলেও তিনি তার সম্পৃক্ততার  কথা অস্বীকার করে বলেন, এসব চাল ব্যবসায়ীরা  কাডধারী পরিবার গুলোর কাছে কিনে মজুদ করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহঃ রাশেদুল হক প্রধান জানান, দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল কালোবাজারে বিক্রি হওয়া দুঃখজনক। তবে কেউ যেন পরবর্তীতে এরকম অপকর্ম করতে না পারে সেদিকে ইউনিয়নবাসীকে সজাগ থাকবার কথা বলা হয়েছে। এদিকে আরও দুটি গোডাউনে অভিযান চালিয়ে ভিজিএফে চাল উদ্ধার করা হয় এবং একজনকে জরিমানা করা হয়।
অভিযানে জলঢাকা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত জানানঃ