ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   চীন থেকে সরঞ্জাম কিনবে না ভারত!

চীন-ভারত বিরোধ

চীন থেকে সরঞ্জাম কিনবে না ভারত!

জুলাই ৪, ২০২০ - ১১:৪৩ অপরাহ্ণ

ভারতজুড়ে চলছে চায়নিজ পণ্য বয়কটের ডাক। লাদাখ ইস্যুতে চলমান উত্তেজনায় যুক্ত হয়েছে ভারতে চলমান চীন ভিত্তক অ্যাপে নিষেধাজ্ঞা। লাদাখ সংঘাতে চীনকে বাণিজ্যিক ভাবে কোণঠাসা করতে তৎপর ভারত। ইতিমধ্যে ৫৯টি চিনা অ্যাপস নিষিদ্ধ করেছে দেশটি।

পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে ভারতীয় ওয়েবসাইটগুলোও বন্ধ করেছে চীন। এবার চীন থেকে বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য সরঞ্জাম আমদানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।

শুক্রবার(০৩ জুলাই) ভারতের কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রী আর কে সিংহ বলেছেন, ‘‘চীন বা পাকিস্তানের মতো দেশ থেকে বিদ্যুৎ সরঞ্জাম আমদানি করতে হলে ভারতীয় কোম্পানিগুলিকে কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমতি নিতে হবে।’’

“চীনের বিদ্যুৎ সরঞ্জামে লুকনো ‘ট্রোজান হর্স’ ভারতে গ্রিড বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে। তাই, বাধ্যতামূলক ভাবে সরকার নির্ধারিত ল্যাবরেটরিতে চিনা বিদ্যুৎ সরঞ্জাম ও যন্ত্রাংশ পরীক্ষা করাতে হবে। যে কোনও ধরনের এম্বেড করা ক্ষতিকারক সফ্টওয়্যার এবং সাইবার হানার প্রতিরোধের বিষয়টি নিশ্চিত করার পাশাপাশি আমদানি করা যন্ত্রাংশের ভারতীয় মান বজায় রাখার বিষয়টিও নিশ্চিত করা হবে।’’

জানা গেছে ২০১৮-’১৯ অর্থবর্ষে ভারত ৭১ হাজার কোটি টাকার বিদ্যুৎ সরঞ্জাম আমদানি করেছে। তার মধ্যে চিন থেকে এসেছে ২১ হাজার কোটি টাকার সামগ্রী। চিনের নাম না-করে এই আমদানি নির্ভরতা বন্ধ করার আবেদন জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তাঁর মন্তব্য, ‘‘এটা মনে নেওয়া যায় না। যে দেশ আমাদের ভূখণ্ডে অনুপ্রবেশ করছে, আমাদের সেনাদের খুন করছে, আমরা সেই দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে সাহায্য করব!’’

সেই বৈঠকে তিনি বলেন, “২০১৮-১৯ মরসুমে বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে আমরা ৭১ হাজার কোটি টাকার সামগ্রী আমদানি করেছে। চিন থেকে এসেছে ২১ হাজার কোটি টাকা। আমাদের এই নির্ভরতা বন্ধ করতে হবে। যে দেশ আমাদের সেনাদের ওপর হামলা চালাচ্ছে, ভূখণ্ড কাড়তে চাইছে, তাদের অর্থনীতি আমরা মজবুত করবো?” তিনি বলেছেন, “আমরা চিন আর পাকিস্তান থেকে কিছু আমদানি করবো না। আপনাদেরও করতে দেবো না। ম্যালওয়ার বা ভাইরাস ছড়িয়ে আমাদের বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের মুখে ফেলতে পারে চিন।”

গত ১৫ জুন রাতে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত ও চিনা সেনার মুখোমুখি সংঘর্ষে এক কর্নেল-সহ নিহত হন ২০ জন ভারতীয় সেনা। ফলে দেশ জুড়ে তীব্র চিনবিরোধী মনোভাব তৈরি হয়েছে। লাদাখে দুই দেশের মধ্যে তৈরি হওয়া উত্তেজনার বিষয়ে গত এক অনষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন ভারত চিনকে উপযুক্ত জবাব দিয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ