ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   খাগড়াছড়িতে পারিবারিক বিরোধে মেয়রের দুই ভাই গুলিবিদ্ধ

খাগড়াছড়িতে পারিবারিক বিরোধে মেয়রের দুই ভাই গুলিবিদ্ধ

নভেম্বর ১৬, ২০২০ - ১১:২২ পূর্বাহ্ণ

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার সোনাইপুল এলাকায় পারিবারিক বিরোধের জেরে পৌর মেয়রের এক সহোদর শাহরিয়ার শাহেদ (৪৫) পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় মাথায় আঘাত পেয়েছেন আরেক ভাই কাজী শিফন (৩৮)। রোববার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার পর আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চমেক হাপাতালে পাঠান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মো. মনির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ পর্যন্ত কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি কেউ।

পারিবারিক বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন পুলিশের এ কর্মকর্তা।

এদিকে স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে দীর্ঘদিন ধরে রামগড় পৌরসভার মেয়র কাজী মোহাম্মদ শাহজাহান ওরফে রিপনসহ তার ভাইদের মধ্যে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। কিছুদিন পূর্বেও এ-সংক্রান্ত ঝামেলায় মেয়রের ছোট ভাই কাজী শাহরিয়ার ইসলাম শাহেদ ও তার আরেক ভাই জিয়াউল হক শিপনকে পেটে ছুরিকাঘাত করে, যা নিয়ে রামগড় থানায় জিডি করা হয়েছে।

পূর্বের বিরোধের রোববার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮টা থেকে পৌনে ৯টার দিকে কাজী শাহরিয়ার ইসলাম সাহেদ ও কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুলের সঙ্গে কাজী জিয়াউল হক শিপনের মারামারির ঘটনা ঘটে। এতে সাহেদ ও শিমুলের হামলায় শিপন মাথায় মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হন। একপর্যায়ে শিপন তার কাছে থাকা একটি অবৈধ অস্ত্র বের করে সাহেদের পায়ে গুলি করে বলে জানা যায়।

এ সময় সাহেদ গুলিবিদ্ধ হয়ে রামগড় ও নিকটস্থ সোনাইপুল বাজারে আওয়ামী লীগ-যুবলীগের লোকজনকে ফোনে খবর দিলে তারা এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় এবং শিপনকে অবরুদ্ধ করে হামলার চেষ্টা চালায়। তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিপনকে উদ্ধার করে পুলিশ পাহারায় রামগড় হাসপাতালে ভর্তি করেছে জানা যায়।

আপনার মতামত জানানঃ