ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  সারা বাংলা   »   কুমিল্লায় রমরমা কোরবানির হাট

কুমিল্লায় রমরমা কোরবানির হাট

জুলাই ২৯, ২০২০ - ১:০৪ অপরাহ্ণ
কুমিল্লায় কোরবানির হাট

ঈদুল আজহার আর মাত্র হাতেগোনা কয়দিন বাকি। শেষ সময়ে জমে উঠেছে কুমিল্লায় কোরবানির পশুর হাট। পছন্দের পশু কিনতে হাটে হাটে ছুটছে মানুষ। মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) জেলার বেশিরভাগ পশুর হাটই ছিল ক্রেতা-বিক্রেতায় মুখরিত। শেষ সময়ে পশুর হাটগুলোয় ধুম পড়েছে বেচাকেনায়। বিক্রেতাদের মুখে ফুটেছে হাসির ঝিলিক।

করোনা সংকটের শুরুতে এ বছর কোরবানির হাটে ক্রেতা একেবারে কম থাকায় হতাশ হয়ে পড়েছিলেন খামারিসহ বিক্রেতারা। দিন যত ঘনিয়ে আসছে বাড়ছে বেচা-বিক্রি। বিক্রি বেড়েছে দেশি ছোট আকারের গরুর। হাটে বড় গরুর চাহিদা তুলনামূলক কম।

মঙ্গলবার সরেজমিন সদর উপজেলার কালিরবাজার পশুর হাট ও সদর দক্ষিণের চৌয়ারা বাজার পশুর হাট ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

কালিরবাজার হাটে গিয়ে দেখা যায়, হাটে দেশি গরুতে ভরপুর। ক্রেতায় ঠাসা পশুহাট। ক্রেতারা দেখে শুনে পছন্দের পশু কিনছেন কোরবানির জন্য। বিকেল ৫টার মধ্যে শেষ হয়ে গেছে অর্ধেক বেচা-বিক্রি।

কালিরবাজার পশুর হাটের ইজারাদার মো. ইউনুছ জানান, বেলা ৫টার মধ্যে অর্ধেক গরু বিক্রি হয়েছে। বাজারে ওঠা মোট ৭০-৭৫ ভাগ গরু বিক্রি হয়েছে। আগের বাজারের তুলনায় দাম বেশি পাওয়ায় খুশি বিক্রেতারা। ক্রেতাদেরও কোনো অভিযোগ নেই।

অপরদিকে সীমান্তবর্তী এলাকা চৌয়ারা বাজার গিয়ে দেখা গেছে, ভারতীয় গরু নাই বললেই চলে। ক্রেতারা জানান, শনিবারের হাটের তুলনায় মঙ্গলবার দাম অনেক বেশি। ক্রেতা কামাল উদ্দিন জাফরী বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার দাম কম হলেও বেচা-বিক্রি আগের চেয়ে বাড়ায় গত বাজারের তুলনায় আজ দাম একটু বেশি। হাটে আসা একাধিক পশু-বিক্রেতারা জানান, এ বছর কোরবানিতে ছোট গরু চাহিদা বেশি। ক্রেতারা ৫০ হাজার থেকে শুরু করে ৭৫ হাজার টাকার মধ্যে পছন্দের পশু কিনছেন বেশি। ১০০ কেজির উপরে হবে এমন গরুক্রেতা হাটে এখন পর্যন্ত কম।

জানা যায়, এ বছর কুমিল্লায় জেলায় ৩৭৮ টি স্থানে বসবে কোরবানির হাট। গত বছর কুমিল্লায় কোরবানির হাটের সংখ্যা ছিল ৭০৬টি। করোনা সংকটের কারণে কুমিল্লায় এবার কোরবানির হাট প্রায় অর্ধেক কমে গেছে।

কুমিল্লা জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, এবার কোরবানিতে জেলায় পশুর চাহিদা রয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার আর জেলায় মজুদ রয়েছে ২ লাখ ৩১ হাজার পশু। কোরবানির পশুর সামান্য ঘাটতি থাকলেও করোনা কারণে অর্থনৈতিক মন্দায় ১০-১৫ ভাগ পশু কোরবানি কমে যেতে পারে।

এদিকে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন ও জেলা প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তর অনলাইনে কোরবানি পশু ক্রয় করার জন্য অ্যাপস চালু করেছে। এতে করোনা সংক্রমণ রোধে স্বল্প পরিসরে হাটে যাওয়ার জন্য এবং অনলাইনের মাধ্যমে গরু ক্রয় করতে আহ্বান জানানো হচ্ছে। তবে শহরের হাতেগোনা কিছু মানুষ অনলাইনে গরু কিনলেও সিংহভাগ মানুষ ছুটছেন কোরবানির হাটে।

আপনার মতামত জানানঃ