ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  প্রযুক্তি   »   কুখ্যাত সেই রোবট গ্রেপ্তার (ভিডিও)

কুখ্যাত সেই রোবট গ্রেপ্তার (ভিডিও)

September 18, 2016 - 8:54 AM

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : আলোচিত একটি রোবট, যেটি কিনা গবেষণাগার থেকে দুইবার পলায়নের জন্য কুখ্যাত, এই রোবটটিকে এবার একটি রাজনৈতিক সমাবেশ থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

যুক্তরাজ্যের মিরর অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, প্রমোবট নামক এই রোবটটি সম্প্রতি মস্কোতে রাশিয়ান সংসদ প্রার্থী ভ্যালেরি ক্যালেচেভকে সমর্থন করছিল। প্রমোবটকে গ্রেপ্তার করার কারণ, রোবটটি বিভিন্ন বিষয়ের ওপর ভোটারদের মতামত রেকর্ডিং করছিল প্রার্থীর দল আরো প্রক্রিয়াকরণের এবং বিশ্লেষণের জন্য। কেউ একজন এ ঘটনায় পুলিশকে ফোন করেন।

একটি কোম্পানির মুখপাত্র ইনভার্স পত্রিকা ডটকমকে বলেন, পুলিশ রোবটটি জনাকীর্ণ এলাকা থেকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায় এবং এমনকি তাকে হাতকড়া পড়াতে চেষ্টা করে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, রোবটটি কোনো প্রতিরোধ গড়ে তোলেনি।

প্রোমোবেট রোবটটি অতীতে খবরের শিরোনামে এসেছিল, গবেষণাগার থেকে পালিয়ে ব্যস্ত রাস্তায় ট্রাফিট জ্যাম সৃষ্টি করার কারণে। তাও একবার নয় দুইবার এই ঘটনা ঘটিয়েছিল রোবটটি।
রাশিয়ার প্রমোবোট রিসার্স ল্যাবরেটরির বিজ্ঞানীদের তৈরি এই রোবটটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্ত্বাসম্পন্ন। এটি মূলত কাস্টমার সার্ভিস রোবট, যা কাস্টমারদের সঙ্গে যোগাযোগ ও প্রশ্নের উত্তর প্রদানের উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়েছে।

এ বছরের জুনে রোবটটি দু্ইবার গবেষণাগার থেকে পালিয়ে গিয়েছিল এবং প্রায় ৪০ মিনিট রাস্তায় একা চলাচল করেছিল। কিন্তু এরপরে ব্যাটারি শেষ হয়ে রাস্তায় বিকল হয়ে পড়লে রোবটটির কারণে যানজট সৃষ্টির ঘটনা ঘটেছিল। ট্রাফিট পুলিশের কাছ থেকে খবর পেয়ে বিজ্ঞানীরা এটিকে গবেষণাগারে ফেরত নিয়ে যায়।
রোবটটির এই পলায়ন ঘটনা প্রসঙ্গে প্রোমোবোট গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি তাদের ব্লগে জানিয়েছিল, তাদের প্রকৌশলীরা রোবটটির জন্য নতুন পজিশনিং সিস্টেম তৈরির চেষ্টা করছিলেন, যেটা তার চলাচলের সময় কোনো ধরনের সংঘর্ষ এড়াতে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তাকে সাহায্য করবে। কিন্তু এই পরীক্ষাটি চালানোর সময় ভূলবশত ল্যাবের গেট খোলা ছিল। যার ফলে পরীক্ষণের এক পর্যায়ে রোবটটি গেট দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয় ও রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে।

যদিও রোবটটির দুইবার এই অদ্ভুতভাবে পালানোর ব্যাপারটিকে অনেকেই সন্দেহের চোখে নিয়েছিলেন। অনেকের ধারনা, এটা আদতে লোক দেখানো কোনো বিষয়। প্রচার প্রচারণার জন্যই সম্ভবত রোবটিকে একা ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। কারণ এ ঘটনায় বিশ্বব্যাপী নজর কেড়েছে রাশিয়ার বিজ্ঞানীদের প্রেমোবট রোবট।

তবে রোবট পলায়নের এই ঘটনা কিন্তু বিশ্বকে এক কঠিন প্রশ্নেরও মুখোমুখি করেছে, আর তা হচ্ছে- ভবিষ্যতে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নিয়ন্ত্রণ করবে কারা? মানুষ নাকি রোবট?

 

আপনার মতামত জানানঃ