ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  বিনোদন   »   এ’ পাওয়ায় চটলেন রাখি

এ’ পাওয়ায় চটলেন রাখি

September 5, 2016 - 11:21 AM

বিনোদন ডেস্ক : সানি লিওন এবং রাখি সাওয়ান্তের সাপে-নেউলে সম্পর্কটা নতুন নয়। তাই আবারও সানিকে খোঁচা দিয়ে কথা বললেন রাখি সাওয়ান্ত। সাবেক এই পর্নো তারকাকে এর আগে অনেকভাবেই খোঁচা দিয়েছেন বলিউডের ‘আইটেম কুইন’ রাখি।

সম্প্রতি রাখি সাওয়ান্ত অভিনীত ‘এক কাহানি জুলি কি’ সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেয়েছে। কিন্তু সেন্সর বোর্ড ‘ইউ/এ’ থেকে ‘এ’ সার্টিফিকেট দিয়েছে। আর এ কারণেই সেন্সর বোর্ডের ওপর ভীষণ ক্ষিপ্ত হয়েছেন এ অভিনেত্রী।
এ প্রসঙ্গে রাখি বলেন, ‘সেন্সর বোর্ড বন্ধ করে দেওয়া উচিত, কারণ তারা বড় ব্যানার থেকে টাকা নেওয়া এবং গরীব প্রযোজকদের টিজ করা ছাড়া আর কিছুই করে না। তারা জনসম্মুখে ঘুষ এবং তাদের পদের সুবিধা নিতে চায়। সেখানে যারা আছেন সকলেই অশিক্ষিত। আমি পেহলাজ নিহালানিকে চেয়্যারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে দেব। আর তিনি যদি কিছু না জানেন তাহলে তার জায়গায় আমি বসব। আমি মনে করি তার চেয়ে এ কাজ আমি ভালো করব। অন্তত তাদের ব্যানার অনুযায়ী প্রযোজকদের পক্ষপাত করব না।’

সেন্সর বোর্ডের এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করতে গিয়ে সানিকে খোঁচা দিয়ে রাখি সাওয়ান্ত বলেন, ‘তারা সিনেমাটির সার্টিফিকেট পরিবর্তন করেছে কারণ আমরা তাদের কোনো টাকা দেই নি অথবা সিনেমাটিতে রাখি সাওয়ান্ত আছে। একজন আইটেম গার্ল নায়িকা হয়েছে তারা এটিকে ইস্যু বানিয়েছে। তাদের জ্ঞান-বুদ্ধি লোপ পেয়েছে। আমি এই দেশের মেয়ে, একজন বলিউড তারকা, একজন অভিনেত্রী, আইটেম গার্ল অন্তত পর্নো তারকা নই। তাহলে তারা কীভাবে এই সিদ্ধান্ত নিল।

তার যুক্তি তুলে ধরতে তিনি সানিকে খোঁচা দিয়ে আরো বলেন, ‘আমি বিদেশ থেকে আসিনি এবং আমি পর্নো তরকাও নই। তারা ‘এক পেহেলি লীলা’ সিনেমাটিকে ইউ/এ সার্টিফিকেট দিয়েছে, যেখানে একজন পর্নো তারকা নগ্নতা, অশ্লীলতাসহ সব ধরনের নোংরামি দেখিয়েছে এবং স্বল্প পোশাকও পড়েছে। আমি গত ১২ বছর ধরে এই ইন্ডাস্ট্রিতে সংগ্রাম করছি এবং আমার সিনেমাতে কোনো অশ্লীল দৃশ্য নেই। তবুও আমরা ‘এ’ সার্টিফিকেট নিয়ে বসে আছি।’

রাখি সাওয়ান্ত জানিয়েছেন, সেন্সর বোর্ডের বিষয়টি নিয়ে তিনি মুম্বাই উচ্চ আদালতে গিয়েছেন এবং সেন্সর বোর্ডের বিরক্তিকর সিদ্ধান্ত সম্পর্কে অবগত করছেন।

এ প্রসঙ্গে রাখি সাওয়ান্ত বলেন, ‘আমি সেন্সর বোর্ডকে উচিৎ শিক্ষা দেব। তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করব। আমি ইতোমধ্যেই সেন্সর বোর্ডের এ পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্তের জন্য কঠোর ব্যবস্থা নিতে উচ্চ আদালতে আপিল করেছি। আমি মনে করি- সিনেমা ছাড়পত্র দেওয়ার বিষয়টি আদালত নিজের দায়িত্বে নিবেন এবং সেন্সর বোর্ডকে দেশ থেকে উচ্ছেদ করবেন।’

এত ঝামেলার পরেও সিনেমাটি নির্দিষ্ট সময়েই মুক্তি পাবে বলে জানিয়েছেন রাখি। আজিজ পরিচালিত এ সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন অমিত মেহরা, জিমি শর্মা এবং সুনিয়া পান্নু।

আপনার মতামত জানানঃ