ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  ক্রাইম   »   আশুলিয়ায় কিশোরী গণধর্ষণ, কিশোর গ্যাংয়ের তিন সদস্য আটক

আশুলিয়ায় কিশোরী গণধর্ষণ, কিশোর গ্যাংয়ের তিন সদস্য আটক

অক্টোবর ৭, ২০২০ - ১:০০ অপরাহ্ণ

সাভারের আশুলিয়ায় কিশোরীকে গণধর্ষণের ঘটনায় স্থিরছবি ফাঁস হওয়ার পর কিশোর গ্যাংয়ের তিন সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (৭ অক্টোবর) ভোরে আশুলিয়ার ভাদাইল ও নয়ারহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন আরও ৯ কিশোর পলাতক রয়েছে বলে জানা গেছে।

গত এক মাসে আগে আশুলিয়ার ভাদাইল গুলিয়ার চক এলাকায় এই গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ ঘটনায় আটককৃতরা হলেন, ডায়মন আলামিন, জাকির ও রাকিব। তারা আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেলেও বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ফাঁস হওয়া ওই স্থির ছবি থেকে দেখা যায়, একজন কিশোরীর দুই পা চেপে ধরে রেখেছে। আরেক কিশোর ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করছে। আরেকটি ছবিতে আরেক কিশোরীকে তিন-চারজন কিশোর চেপে ধরে রেখেছে। তবে আগের ছবির ধর্ষক এই কিশোরীকে পেছন থেকে গলা টেনে ধরে রেখেছে। আরেক কিশোর তাকে ধর্ষণ করছে। যদিও এই ছবিতে ধর্ষণকারীর মুখায়ব দেখা যাচ্ছে না। তবে ধর্ষণের ফাঁস হওয়া ছবি দুটিতে ভুক্তভোগী কিশোরী দুইজন কি না সেটা বোঝা যাচ্ছে না।

জানা গেছে, প্রায় এক মাস আগে আশুলিয়ার ভাদাইল গুলিয়ারচক এলাকায় কিশোরীকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে কিশোর গ্যাং সদস্যরা। এ ঘটনায় এলাকার কিশোর গ্যাংয়ের দলনেতা সাহরুফ, তার সহযোগী আলমিন, জিদান, রেদওয়ানসহ আরও ১০-১৫ জন জড়িত। তবে এলাকায় ওই কিশোর গ্যাংয়ের বিপক্ষের কিশোররা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম মেসেঞ্জারে ধর্ষণ ঘটনার দুটি স্ক্রিনশট ছড়িয়ে দেয়। এরপর থেকে গোপনে আলোড়ন সৃষ্টি হলেও ভুক্তভোগী খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউর রহমান জিয়া বলেন, ভাদাইল এলাকায় গণধর্ষণের ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ