ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আইন-আদালত   »   আরিফ-সাবরিনাসহ আট আসামির বিচার শুরু

কোভিড রিপোর্ট জালিয়াতি

আরিফ-সাবরিনাসহ আট আসামির বিচার শুরু

আগস্ট ২০, ২০২০ - ৮:১৪ অপরাহ্ণ
ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী

কোভিড রিপোর্ট জালিয়াতির মামলায় জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও সিইও আরিফ চৌধুরীসহ আট আসামির বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আদালত। ২৭ আগস্ট সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করা হয়। কাগজপত্র না থাকার অজুহাতে বারবার সময়ক্ষেপণের চেষ্টা করেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা। তবে দীর্ঘ শুনানি শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত।

নমুনা ফেলে দিয়ে মনগড়া কোভিড রিপোর্ট তৈরির হোতা জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা ও তার স্বামী আরিফ চৌধুরী এখন বিচারের মুখোমুখি। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে তাদেরকে কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নিয়ে এসে রাখা হয় আদালতের হাজতখানায়।

বেলা পৌনে ১২টার দিকে পুলিশের কড়া পাহারায় আসামিদের এজলাসে নিয়ে যাওয়া হলেও সঠিক সময়ে শুনানি শুরু করা যায়নি। ১৩ আগস্টের মতো বৃহস্পতিবারও মামলার নথি না পাওয়ার কথা জানিয়ে আবারো সময় বাড়ানোর আবেদন করে আসামিপক্ষ।

নানা নাটকীয়তার পর মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারীর আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে শুনানি শুরু হয়। উভয়পক্ষের শুনানী শেষে ডা. সাবরিনা ও আরিফ চৌধুরীসহ ৮ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের নির্দেশ দেন আদালত। একইসঙ্গে আগামী ২৭ আগস্ট মামলার সাক্ষগ্রহণের দিন ধার্য করা হয়।

রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী বলেন, মামলাটাকে তারা দীর্ঘ করার জন্য এগুলো করছেন। শেষ পর্যন্ত কিন্তু তারা প্রত্যেকেই আসামিদের পক্ষে পিটিশন দিয়েছে আদালতে এবং শুনানি করেছে। যদি তাদের কাগজপত্র না থাকত তাহলে তারা কিভাবে সই করে।

যদিও তড়িগড়ি করে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে, এমন অভিযোগ এনে উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানান আসামিপক্ষের আইনজীবী।

আসামি পক্ষের আইনজীবী বলেন, এত বড় একটা মামলা যেখানে ৬০ থেকে ৬২ পৃষ্ঠার একটা চার্জশিট। আমাদের আরেকটু সময় দিলে আমরা কম্পাইল করে আমরা আরেকটু ভালো করে পড়াশুনা করে প্রিপারেশন নিয়ে আমরা মামলাটির তথ্য দিতে পারতাম।

ভুয়া কোভিড রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে গত ১২ জুলাই ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারও ২০ দিন আগে গ্রেফতার হন তার স্বামী জেকেজির কর্ণধার আরিফ চৌধুরী। এ মামলায় গত ৫ আগস্ট আদালতে চার্জশিট দেয় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

Tags:

আপনার মতামত জানানঃ