ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   অভিষেকে দূত্যি ছড়িয়ে বল হাতে ৫ উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ

অভিষেকে দূত্যি ছড়িয়ে বল হাতে ৫ উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ

October 20, 2016 - 1:18 PM

চট্টগ্রাম : অভিষেকে দূত্যি ছড়িয়ে বল হাতে ৫ উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সব বাঘাবাঘা ব্যাটসম্যানদের সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছেন তিনি।

কিন্তু তার চোখে সেরা জনি বেয়ারস্টোর উইকেট। ইংলিশ উইকেট রক্ষকের উইকেট দিয়ে প্রথমবারের মতো পঞ্চম উইকেটের স্বাদ পান মিরাজ। ৮৫.১ কি.মি. গতির বল বুঝে উঠতে না পেরে উইকেট হারান ৫২ রান করা বেয়ারস্টো।

এ উইকেটের মধ্য দিয়ে সবচেয়ে কম বয়সে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে অভিষেকে পাঁচ উইকেট নেওয়ার কৃর্তি গড়েন মিরাজ।

জনি বেয়ারস্টোর উইকেটটাকে সেরা বললেও কেন সেরা সে কারণ ব্যাখ্যা করেননি ডানহাতি এ স্পিনার। উইকেটটি নিয়ে তার বক্তব্য, ‘উইকেট সবগুলোই ভালো লাগছে। তবে সবশেষে যেটা বোল্ড করলাম সেটাই বেশ ভালো লাগছে। বলটা পরে সোজা গেছে। আমিও বুঝিনি কি হয়েছে, সেও বুঝেনি কি হয়েছে …(হাসি)’।

ইংল্যান্ড শিবিরে প্রথম আঘাত করেন মিরাজ। আউট সাইড অব দ্যা ক্রিজ থেকে লেগ স্ট্যাম্পে বল ফেলে অফস্ট্যাম্পে টার্ন করান মিরাজ। তাতেই ইংল্যান্ডের অভিষিক্ত ক্রিকেটার বেন ডাকেটের উইকেট নেই। এরপর গ্যারি ব্যালেন্সেকে সাজঘরে ফেরত পাঠান ডানহাতি এ অফস্পিনার। মিরাজের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শিকার জো রুট, মঈন আলী ও জনি বেয়াটস্টো।

পুরোদিনে ৩৩ ওভার বল করেছেন মিরাজ। ৬ মেডেনে ৬৪ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট। পুরোদিন বোলিং করেও কোনো ক্লান্তি নেই মিরাজের। পাশাপাশি নতুন বলে বল করে পেয়েছেন উইকেট। জানালেন পুরনো বলের মতো নতুন বলেও বল করতে যথেষ্ট সাচ্ছ্বন্দ্যবোধ করেন এ যুবা। তার ভাষ্য, ‘আমি অনেক আগের থেকেই নতুন বলে বল করি। যখন আমি অনূর্ধ্ব-১৫ ও ১৭ ক্রিকেট খেলি তখন নতুন বলে বল করেছি। অনূর্ধ্ব-১৯ যখন খেলেছি তখনও নতুন বলে বল করেছি। নতুন বল আমার কাছে নতুন কিছু নয়।’

আপনার মতামত জানানঃ