ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  প্রযুক্তি   »   অদৃশ্য হচ্ছে ফেসবুক পেজের লাইক

অদৃশ্য হচ্ছে ফেসবুক পেজের লাইক

জুলাই ২৭, ২০২০ - ৮:০৪ অপরাহ্ণ
ফেসবুক

বিশ্বর সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট ফেসবুক । যার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত বিশ্বের কোটি মানুষ। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন সময় ফেসবুক তাদের ফিচারে আনে নানা পরিবর্তন।

প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট টেকক্রাঞ্চের তথ্য অনুযায়ী, পেজে লাইকের হিসাব করার ফিচার না রাখার পরিকল্পনা করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে কয়েকজন সেলিব্রেটি নতুন পেজ পেয়েছেন। ফেইসবুকের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, হালনাগাদ নকশা ও ফিচারযুক্ত পেজ ব্যবহার আরো সহজ হবে। এতে জটিল বিষয়গুলো বাদ দেয়া হয়েছে। ফেসবুক পেজে শুধু ‘ফলো’ বাটন ও ‘ফলোয়ার কাউন্ট’ বাটনটি থাকবে। এতে পেজের সত্যিকারের রিচ স্পষ্ট বোঝা যাবে।

বছরের পর বছর ধরে অনেক মানুষ বিভিন্ন পেজে লাইক দিয়ে রাখেন। কিন্তু নিউজ ফিড থেকে এগুলো আনফলো করেন। এতে তাদের অনাগ্রহের বিষয়টি স্পষ্ট। আবার অনুরোধের কারণে অনেকে পেজে লাইক দেন। কিন্তু পোস্ট দেখেন না। এতে পেজের আগ্রহীদের প্রকৃত সংখ্যা বোঝা যায় না।

নতুন হালনাগাদ আসলে পেজ ব্যবস্থাপকেরা চাইলে ফলোয়ারদের নিউজ ফিডে গিয়ে যুক্ত হতে পারবেন। এছাড়া ব্যক্তিগত ফেসবুকপ্রোফাইল ও পেজের যাওয়া-আসার কাজও সহজতর হবে।

ফেইসবুক (ইংরেজি: Facebook) অথবা ফেসবুক (সংক্ষেপে ফেবু নামেও পরিচিত) বিশ্ব-সামাজিক আন্তঃযোগাযোগ ব্যবস্থার একটি ওয়েবসাইট, যা ২০০৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত হয়। এটিতে বিনামূল্যে সদস্য হওয়া যায়। এর মালিক হলো ফেসবুক ইনক। ব্যবহারকারীগণ বন্ধু সংযোজন, বার্তা প্রেরণ এবং তাদের ব্যক্তিগত তথ্যাবলী হালনাগাদ ও আদান প্রদান করতে পারেন, সেই সাথে একজন ব্যবহারকারী শহর, কর্মস্থল, বিদ্যালয় এবং অঞ্চল-ভিক্তিক নেটওয়ার্কেও যুক্ত হতে পারেন। শিক্ষাবর্ষের শুরুতে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যকার উত্তম জানাশোনাকে উপলক্ষ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক প্রদত্ত বইয়ের নাম থেকে এই ওয়েবসাইটটির নামকরণ করা হয়েছে।

মার্ক জাকারবার্গ হার্ভাড বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালীন তার কক্ষনিবাসী ও কম্পিউটার বিজ্ঞান বিষয়ের ছাত্র এডুয়ার্ডো স্যাভেরিন, ডাস্টিন মস্কোভিত্‌স এবং ক্রিস হিউজেসের যৌথ প্রচেষ্টায় ফেসবুক নির্মাণ করেন। ওয়েবসাইটটির সদস্য প্রাথমিকভাবে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল, কিন্তু পরে সেটা বোস্টন শহরের অন্যান্য কলেজ, আইভি লীগ এবং স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সম্প্রসারিত হয়। আরো পরে এটা সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, হাই স্কুল এবং ১৩ বছর বা ততোধিক বয়স্কদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। সারা বিশ্বে বর্তমানে এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করছেন ২৫০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারী।

ফেসবুক তার চলার পথে বেশ কিছু বাধার সম্মুখীন হয়েছে।বাংলাদেশ, সিরিয়া, চায়না এবং ইরান সহ বেশ কয়েকটি দেশে এটা আংশিকভাবে কার্যকর আছে। এটার ব্যবহার সময় অপচয় ব্যাখ্যা দিয়ে কর্মচারীদের নিরুৎসাহিত করে তা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ফেসবুক ওয়েবসাইট কে আইন জটিলতায় পড়তে হয়েছে বেশ কয়েকবার জাকারবার্গের সহপাঠী কর্তৃক, তারা অভিযোগ এনেছেন যে ফেসবুক তাদের সোর্স কোড এবং অন্যান্য বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি আত্মসাৎ করেছে।

ফেব্রুয়ারি ২০১৫ সালের হিসাব অনুযায়ী ফেসবুকের মূলধন ২১২ বিলিয়ন ডলারে গিয়ে উঠেছে।

আপনার মতামত জানানঃ